ঢাকা , বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
উচ্ছ্বাস আর আনন্দে বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখের উদযাপন করেছে পর্তুগাল যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা রিডানডেন্ট ক্লোথিং আর মজুর মামার ‘বিশ্বকাপ’ ইউরোপের সবচেয়ে বড় ঈদুল ফিতরের নামাজ পর্তুগালে অনুষ্ঠিত হয় বর্ণাঢ্য আয়োজনে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের ইফতার ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন ঈদের কাপড় কিনার জন্য মা’য়ের উপর অভিমান করে মেয়ের আত্মহত্যা লিসবনে বন্ধু মহলের আয়োজনে বিশাল ইফতার ও দোয়া মাহফিল মান অভিমান ভুলে সবাই একই প্লাটফর্মে,সংবাদ সম্মেলনে পর্তুগাল বিএনপির নবগঠিত আহবায়ক কমিটি

জন্মের পরই ৫তলা থেকে নবজাতককে ফেলে হত্যাকারী ‘মা’ আটক

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ
  • আপডেটের সময় : ০৯:১৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০১৯
  • / ৭৬৮ টাইম ভিউ

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ রাজধানীর মিরপুরে নিজের সদ্যোজাত সন্তানকে পাঁচতলা থেকে নিচে ফেলে হত্যা করেছে জান্নাতুন নেছা নামের এক কিশোরী। গতকাল শনিবার রূপনগর আবাসিক এলাকার ১০ নম্বর রোডের ১৮ নম্বর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত ওই কিশোরী মাকে আটক করেছে পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শী জানায়, আজ দুপুর পৌনে ১২টার দিকে শিশুটিকে ওই বাড়ির বাথরুমের ভেন্টিলেটর দিয়ে নিচে ফেলে দেয়া হয়। নিচে পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই শরীর ছিন্ন ভিন্ন হয়ে শিশুটি মারা যায়। খবর পেয়ে রূপনগর থানার এসআই পরিমল লাশটি উদ্ধার করেন।
এসআই পরিমল জানান, শিশুটিকে যে বাথরুমের ভেন্টিলেটর দিয়ে নিচে ছুড়ে ফেলা হয়েছে, সেখানে রক্তের দাগ রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, বাচ্চাটি জন্মের সঙ্গে সঙ্গেই বাথরুমের ওই ভেন্টিলেটর দিয়ে ফেলে দেয়া হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

রূপনগর থানা সূত্র জানায়, ওই বাসা থেকে জান্নাতুনকে আটকের পর সে স্বীকার করেছে, সেই আসলে বাচ্চাটির জন্ম দিয়েছে। জন্মের পরপরই বাথরুমের ভেন্টিলেটর দিয়ে সে নিজেই সদ্যোজাত সন্তানকে ফেলে দিয়েছে।

তিনি আরও জানান, গ্রেফতারের পর জান্নাতুন জানিয়েছে, সে এবার মনিপুরি স্কুল থেকে এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে। তার সঙ্গে দূর-সম্পর্কের এক চাচার প্রেমের সম্পর্ক হয়। তার সঙ্গে অনৈতিক মেলামেশায় ওই বাচ্চাটি গর্ভে আসে। এ সম্পর্ক তার পরিবার মেনে নেবে না বলে বাচ্চাটিকে ৫তলা থেকে ফেলে দিয়েছে।

পোস্ট শেয়ার করুন

জন্মের পরই ৫তলা থেকে নবজাতককে ফেলে হত্যাকারী ‘মা’ আটক

আপডেটের সময় : ০৯:১৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০১৯

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ রাজধানীর মিরপুরে নিজের সদ্যোজাত সন্তানকে পাঁচতলা থেকে নিচে ফেলে হত্যা করেছে জান্নাতুন নেছা নামের এক কিশোরী। গতকাল শনিবার রূপনগর আবাসিক এলাকার ১০ নম্বর রোডের ১৮ নম্বর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত ওই কিশোরী মাকে আটক করেছে পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শী জানায়, আজ দুপুর পৌনে ১২টার দিকে শিশুটিকে ওই বাড়ির বাথরুমের ভেন্টিলেটর দিয়ে নিচে ফেলে দেয়া হয়। নিচে পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই শরীর ছিন্ন ভিন্ন হয়ে শিশুটি মারা যায়। খবর পেয়ে রূপনগর থানার এসআই পরিমল লাশটি উদ্ধার করেন।
এসআই পরিমল জানান, শিশুটিকে যে বাথরুমের ভেন্টিলেটর দিয়ে নিচে ছুড়ে ফেলা হয়েছে, সেখানে রক্তের দাগ রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, বাচ্চাটি জন্মের সঙ্গে সঙ্গেই বাথরুমের ওই ভেন্টিলেটর দিয়ে ফেলে দেয়া হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

রূপনগর থানা সূত্র জানায়, ওই বাসা থেকে জান্নাতুনকে আটকের পর সে স্বীকার করেছে, সেই আসলে বাচ্চাটির জন্ম দিয়েছে। জন্মের পরপরই বাথরুমের ভেন্টিলেটর দিয়ে সে নিজেই সদ্যোজাত সন্তানকে ফেলে দিয়েছে।

তিনি আরও জানান, গ্রেফতারের পর জান্নাতুন জানিয়েছে, সে এবার মনিপুরি স্কুল থেকে এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে। তার সঙ্গে দূর-সম্পর্কের এক চাচার প্রেমের সম্পর্ক হয়। তার সঙ্গে অনৈতিক মেলামেশায় ওই বাচ্চাটি গর্ভে আসে। এ সম্পর্ক তার পরিবার মেনে নেবে না বলে বাচ্চাটিকে ৫তলা থেকে ফেলে দিয়েছে।