ঢাকা , শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা রিডানডেন্ট ক্লোথিং আর মজুর মামার ‘বিশ্বকাপ’ ইউরোপের সবচেয়ে বড় ঈদুল ফিতরের নামাজ পর্তুগালে অনুষ্ঠিত হয় বর্ণাঢ্য আয়োজনে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের ইফতার ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন ঈদের কাপড় কিনার জন্য মা’য়ের উপর অভিমান করে মেয়ের আত্মহত্যা লিসবনে বন্ধু মহলের আয়োজনে বিশাল ইফতার ও দোয়া মাহফিল মান অভিমান ভুলে সবাই একই প্লাটফর্মে,সংবাদ সম্মেলনে পর্তুগাল বিএনপির নবগঠিত আহবায়ক কমিটি ইতালির ভিসেন্সায় সিলেট ডায়নামিক অ্যাসোসিয়েশনের আয়োজনে ইফতার ও দোয়া অনুষ্ঠিত

ছাত্রলীগের সেই ‘হাতুড়ি’ নেতার হাত-পা ভেঙে দিল প্রহরী!

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ
  • আপডেটের সময় : ১১:৪৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ৮ মে ২০১৯
  • / ৭৫৩ টাইম ভিউ

কোটা সংস্কার আন্দোলনে অংশ নেওয়ায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের মাস্টার্সের ছাত্র তরিকুল ইসলামকে হাতুড়িপেটা করা ছাত্রলীগের সেই নেতাকে এবার মারধর করে হাত ও পা ভেঙে দিয়েছে লিচু বাগানের প্রহরীরা। প্রহরীদের হামলায় আহত দুজনের একজন তরিকুলকে হাতুড়িপেটার সঙ্গে জড়িত বলে নিজের ব্যাক্তিগত ফেসবুকে জানিয়েছেন কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতা রাশেদ খান ও মশিউর রহমান।

জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন লিচু বাগানে রাতের বেলা লিচু পাড়তে গেলে বাগানের প্রহরীরা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক মাহমুদুর রহমান কানন এবং উপ-আন্তর্জাতিক সম্পাদক মেহেদি হাসানকে পিটিয়ে জখম ও হাত ভেঙে দিয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের রোকেয়া হলের পেছনের গোদাগাড়ী বাগানে লিচু পাড়তে গেলে তাদেরকে মারধর করা হয়। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা তৎক্ষণাৎ বাগানের ভেতর প্রহরীদের থাকার ঘরে আগুন লাগিয়ে দেয়।

আহত ছাত্রলীগের উপ-আন্তর্জাতিক সম্পাদক মেহেদি হাসান কোটা আন্দোলনকারী তরিকুলকে হাতুড়িপেটা করা মামুনের সহযোগী ছিল। গত বছরের ২ জুলাই কোটা সংস্কারের দাবিতে পূর্বঘোষিত শান্তিপূর্ণ আন্দোলন কর্মসূচিতে অংশ নিতে গেলে মেহেদীসহ ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মীর হামলায় মারাত্মক আহত হন তরিকুল। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে এক্স-রেসহ বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখা গেছে, হাতুড়ির আঘাতে তরিকুলের ডান পা ভেঙে গেছে।

গতকাল ছাত্রলীগের সেই হাতুড়ি দিয়ে হামলাকারী নেতা মেহেদীর পা ভেঙে দিল ক্যাম্পাসের প্রহরীরা। মারধরের শিকার হওয়া ছাত্রলীগের ওই দুই নেতাকে চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মারধরে কাননের দুটি হাতই ভেঙে গেছে এবং মেহেদীর এক পায়ে গুরুতর জখম হয়েছে। এক্সরে করার পর দেখা গেছে মেহেদীর পায়ের হাড় ভেঙে গেছে। তবে মারধরকারীদের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

পোস্ট শেয়ার করুন

ছাত্রলীগের সেই ‘হাতুড়ি’ নেতার হাত-পা ভেঙে দিল প্রহরী!

আপডেটের সময় : ১১:৪৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ৮ মে ২০১৯

কোটা সংস্কার আন্দোলনে অংশ নেওয়ায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের মাস্টার্সের ছাত্র তরিকুল ইসলামকে হাতুড়িপেটা করা ছাত্রলীগের সেই নেতাকে এবার মারধর করে হাত ও পা ভেঙে দিয়েছে লিচু বাগানের প্রহরীরা। প্রহরীদের হামলায় আহত দুজনের একজন তরিকুলকে হাতুড়িপেটার সঙ্গে জড়িত বলে নিজের ব্যাক্তিগত ফেসবুকে জানিয়েছেন কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতা রাশেদ খান ও মশিউর রহমান।

জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন লিচু বাগানে রাতের বেলা লিচু পাড়তে গেলে বাগানের প্রহরীরা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক মাহমুদুর রহমান কানন এবং উপ-আন্তর্জাতিক সম্পাদক মেহেদি হাসানকে পিটিয়ে জখম ও হাত ভেঙে দিয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের রোকেয়া হলের পেছনের গোদাগাড়ী বাগানে লিচু পাড়তে গেলে তাদেরকে মারধর করা হয়। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা তৎক্ষণাৎ বাগানের ভেতর প্রহরীদের থাকার ঘরে আগুন লাগিয়ে দেয়।

আহত ছাত্রলীগের উপ-আন্তর্জাতিক সম্পাদক মেহেদি হাসান কোটা আন্দোলনকারী তরিকুলকে হাতুড়িপেটা করা মামুনের সহযোগী ছিল। গত বছরের ২ জুলাই কোটা সংস্কারের দাবিতে পূর্বঘোষিত শান্তিপূর্ণ আন্দোলন কর্মসূচিতে অংশ নিতে গেলে মেহেদীসহ ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মীর হামলায় মারাত্মক আহত হন তরিকুল। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে এক্স-রেসহ বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখা গেছে, হাতুড়ির আঘাতে তরিকুলের ডান পা ভেঙে গেছে।

গতকাল ছাত্রলীগের সেই হাতুড়ি দিয়ে হামলাকারী নেতা মেহেদীর পা ভেঙে দিল ক্যাম্পাসের প্রহরীরা। মারধরের শিকার হওয়া ছাত্রলীগের ওই দুই নেতাকে চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মারধরে কাননের দুটি হাতই ভেঙে গেছে এবং মেহেদীর এক পায়ে গুরুতর জখম হয়েছে। এক্সরে করার পর দেখা গেছে মেহেদীর পায়ের হাড় ভেঙে গেছে। তবে মারধরকারীদের পরিচয় পাওয়া যায়নি।