ঢাকা , বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে পূর্ব লন্ডনে বড়লেখার সোয়েব আহমেদের সমর্থনে মতবিনিময় সভা ইতালির ভেনিসে গ্রিন সিলেট ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন এর জরুরি সভা অনুষ্ঠিত ইতালির ভেনিসে এনটিভির ইউরোপের ডিরেক্টর সাবরিনা হোসাইন কে সংবর্ধনা দিয়েছে ইউরোপিয়ান বাংলা প্রেসক্লাব পর্তুগালে বেজা আওয়ামীলীগের কর্মি সভা পর্তুগাল এ ফ্রেন্ডশিপ ক্রিকেট ক্লাবের জার্সি উন্মোচন লিসবনে আত্মপ্রকাশ হয় সামাজিক সংগঠন “গোলাপগঞ্জ কমিউনিটি কেয়ারর্স পর্তুগাল “ উচ্ছ্বাস আর আনন্দে বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখের উদযাপন করেছে পর্তুগাল যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা

ছাত্রদলের রাজনীতি করায় আমার স্বামীকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানো হয়েছে

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ
  • আপডেটের সময় : ১০:০১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ অগাস্ট ২০১৯
  • / ৪০৩ টাইম ভিউ

নগরীর শাহজালাল উপশহর এলাকার এনামুল হক ছাত্রদলের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকায় তাকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানো হয়েছে বলে দাবি করেছেন এনামুলের স্ত্রী শ্যামা হক।

বৃহস্পতিবার সিলেট জেলা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে শ্যামা হক বলেন, সরকারি দলের একজন প্রভাবশালী নেতার ইশারায় পুলিশ আমার স্বামীর পকেটে ইয়াবা ঢুকিয়ে তাকে আটক করেছে। তিনি এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও ন্যায়বিচার দাবি করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে শ্যামা হক আরো বলেন, গত ২৫ আগস্ট রাত ৮টার দিকে আমার স্বামী ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে বাসায় ফেরার পথে সিলেট ল’ কলেজের সামনে নেওয়াজ নামে এক ছাত্রলীগ কর্মী ডাক দিয়ে রিকশা থামায়।

রিকশা থেকে নামার পরপরই আর্মড পুলিশের কয়েকজন সদস্য তাকে আটক করে তাদের কার্যালয়ে নিয়ে যায়। অথচ তার বিরুদ্ধে কোনো মামলায় ওয়ারেন্ট ছিল না। তাকে তারা মারধর করে হাতে থাকা মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয় ও তার পকেটে ইয়াবা ট্যাবলেট রেখে দেয়। পরে সামাদ ও সাজু নামের দুইজন আসামির সঙ্গে পুলিশ অ্যাসল্ট ও ইয়াবা মামলায় তাকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে প্রেরণ করে।

সংবাদ সম্মেলনে শ্যামা হক বলেন, অন্য একটি মামলায় আমার দেবর একরামুল হকও এখন জেলে। আমার শ্বশুর এই অবস্থায় আমরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি এবং আরো বড় ক্ষতির আশঙ্কা করছি। ’ শ্যামা হক প্রশাসনের কাছে এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও ন্যায়বিচার দাবি করেছেন।

পোস্ট শেয়ার করুন

ছাত্রদলের রাজনীতি করায় আমার স্বামীকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানো হয়েছে

আপডেটের সময় : ১০:০১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ অগাস্ট ২০১৯

নগরীর শাহজালাল উপশহর এলাকার এনামুল হক ছাত্রদলের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকায় তাকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানো হয়েছে বলে দাবি করেছেন এনামুলের স্ত্রী শ্যামা হক।

বৃহস্পতিবার সিলেট জেলা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে শ্যামা হক বলেন, সরকারি দলের একজন প্রভাবশালী নেতার ইশারায় পুলিশ আমার স্বামীর পকেটে ইয়াবা ঢুকিয়ে তাকে আটক করেছে। তিনি এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও ন্যায়বিচার দাবি করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে শ্যামা হক আরো বলেন, গত ২৫ আগস্ট রাত ৮টার দিকে আমার স্বামী ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে বাসায় ফেরার পথে সিলেট ল’ কলেজের সামনে নেওয়াজ নামে এক ছাত্রলীগ কর্মী ডাক দিয়ে রিকশা থামায়।

রিকশা থেকে নামার পরপরই আর্মড পুলিশের কয়েকজন সদস্য তাকে আটক করে তাদের কার্যালয়ে নিয়ে যায়। অথচ তার বিরুদ্ধে কোনো মামলায় ওয়ারেন্ট ছিল না। তাকে তারা মারধর করে হাতে থাকা মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয় ও তার পকেটে ইয়াবা ট্যাবলেট রেখে দেয়। পরে সামাদ ও সাজু নামের দুইজন আসামির সঙ্গে পুলিশ অ্যাসল্ট ও ইয়াবা মামলায় তাকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে প্রেরণ করে।

সংবাদ সম্মেলনে শ্যামা হক বলেন, অন্য একটি মামলায় আমার দেবর একরামুল হকও এখন জেলে। আমার শ্বশুর এই অবস্থায় আমরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি এবং আরো বড় ক্ষতির আশঙ্কা করছি। ’ শ্যামা হক প্রশাসনের কাছে এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও ন্যায়বিচার দাবি করেছেন।