ঢাকা , রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চারখাইয়ে করোনায় মহিলার মৃত্যু, স্বাস্থ্যবিধি না মেনে গোপনে দাফন

বিয়ানীবাজার প্রতিনিধি :
  • আপডেটের সময় : ০৩:৫৭ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুন ২০২০
  • / ২৯১ টাইম ভিউ

বিয়ানীবাজার প্রতিনিধি :বিয়ানীবাজারের চারখাইয়ে
করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এক মহিলার মৃত্যু হয়েছে। বৃদ্ধ মহিলার নাম রেজিয়া খানম। তিনি গত মঙ্গলবার দিবাগত রাত ৩ টায় সিলেট নগরীর একটি হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন। বুধবার সকালে তার স্বজনরা কাউকে না জানিয়ে গোপনে কোনপ্রকার স্বাস্থ্যবিধি ছাড়াই দাফন করেন।
বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা যায়, গত ১১ জুন বৃহস্পতিবার রেজিয়া খানম করোনার উপসর্গ নিয়ে সিলেট মাউন্ট এডোরা হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানে নমুনা দিয়ে তাঁর করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয় এবং চিকিৎসা চলে। রোগীর বাড়ি বিয়ানীবাজার হলেও হাসপাতালে তার ঠিকানা উপশহর দেয়া হয়। এ কারণে বিয়ানীবাজারে রিপোর্টে আসেনি।

এদিকে, মঙ্গলবার (২৩ জুন) দিবাগত রাত ৩ টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় রেজিয়া খানম ইন্তেকাল করেন। বুধবার সকালে লাশ গ্রামের বাড়িতে নিয়ে আসার পর আনুমানিক ১১ টায় রোগীর স্বজনরাই জানাজা ও দাফন সম্পন্ন করেন।
এ ব্যাপারে বিয়ানীবাজার উপজেলা প্রশাসন কিংবা স্বাস্থ্য বিভাগকে স্থানীয় কোন সচেতন ব্যক্তি কিংবা জনপ্রতিনিধি অবগত করেনি বলে জানিয়েছেন টিএইচও ডা. মোয়াজ্জেম আলী খান চৌধুরী।
উল্লেখ্য, রেজিয়া বেগমসহ বিয়ানীবাজারে এ পর্যন্ত করোনায় তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত হয়েছেন মোট ৫৬ জন।

পোস্ট শেয়ার করুন

চারখাইয়ে করোনায় মহিলার মৃত্যু, স্বাস্থ্যবিধি না মেনে গোপনে দাফন

আপডেটের সময় : ০৩:৫৭ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুন ২০২০

বিয়ানীবাজার প্রতিনিধি :বিয়ানীবাজারের চারখাইয়ে
করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এক মহিলার মৃত্যু হয়েছে। বৃদ্ধ মহিলার নাম রেজিয়া খানম। তিনি গত মঙ্গলবার দিবাগত রাত ৩ টায় সিলেট নগরীর একটি হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন। বুধবার সকালে তার স্বজনরা কাউকে না জানিয়ে গোপনে কোনপ্রকার স্বাস্থ্যবিধি ছাড়াই দাফন করেন।
বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা যায়, গত ১১ জুন বৃহস্পতিবার রেজিয়া খানম করোনার উপসর্গ নিয়ে সিলেট মাউন্ট এডোরা হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানে নমুনা দিয়ে তাঁর করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয় এবং চিকিৎসা চলে। রোগীর বাড়ি বিয়ানীবাজার হলেও হাসপাতালে তার ঠিকানা উপশহর দেয়া হয়। এ কারণে বিয়ানীবাজারে রিপোর্টে আসেনি।

এদিকে, মঙ্গলবার (২৩ জুন) দিবাগত রাত ৩ টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় রেজিয়া খানম ইন্তেকাল করেন। বুধবার সকালে লাশ গ্রামের বাড়িতে নিয়ে আসার পর আনুমানিক ১১ টায় রোগীর স্বজনরাই জানাজা ও দাফন সম্পন্ন করেন।
এ ব্যাপারে বিয়ানীবাজার উপজেলা প্রশাসন কিংবা স্বাস্থ্য বিভাগকে স্থানীয় কোন সচেতন ব্যক্তি কিংবা জনপ্রতিনিধি অবগত করেনি বলে জানিয়েছেন টিএইচও ডা. মোয়াজ্জেম আলী খান চৌধুরী।
উল্লেখ্য, রেজিয়া বেগমসহ বিয়ানীবাজারে এ পর্যন্ত করোনায় তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত হয়েছেন মোট ৫৬ জন।