ঢাকা , সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গলায় ফাঁস দিয়ে শাবি শিক্ষার্থীর আত্মহত্যাi

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেটের সময় : ০৬:৪৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৬ অগাস্ট ২০২০
  • / ৫১৭ টাইম ভিউ

গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) শিক্ষার্থী তুরাবি বিনতে হক। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের (২০১৮-১৯ সেশন) শিক্ষার্থী ছিলেন।

জানা যায়, গতকাল বুধবার (৫ আগস্ট) রাতে নেত্রকোনার চল্লিশা ইউনিয়নের মোগরাটিয়ায় আত্মহত্যার ঘটনাটি ঘটেছে। ঘটনার আগে লেখাপড়া সংক্রান্ত বিষয়ে মায়ের সঙ্গে রাগারাগি করেন তুরাবি। পরে রাত ১০টার দিকে তিনি নিজ কক্ষের দরজা বন্ধ করে দেন। দরজা বন্ধ থাকায় পরিবারের সদস্যরা বার বার ডাকাডাকি করলেও কোনো সাড়া-শব্দ মেলেনি। পরবর্তীতে রাত ৩টার দিকে কক্ষের দরজা ভেঙে তুরাবির ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ বিষয়ে নেত্রকোনা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. তাজুল ইসলাম বলেন, ‘গতকাল (বুধবার) রাতে কাটলি এলাকা থেকে একজনের আত্মহত্যার খবর আসে। সঙ্গে সঙ্গে আমাদের লোকজন গিয়ে কক্ষের দরজা ভেঙে মেয়েটির ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে। তার বাবা একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করেছেন। কারও বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ না থাকায় মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়নি।

পোস্ট শেয়ার করুন

গলায় ফাঁস দিয়ে শাবি শিক্ষার্থীর আত্মহত্যাi

আপডেটের সময় : ০৬:৪৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৬ অগাস্ট ২০২০

গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) শিক্ষার্থী তুরাবি বিনতে হক। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের (২০১৮-১৯ সেশন) শিক্ষার্থী ছিলেন।

জানা যায়, গতকাল বুধবার (৫ আগস্ট) রাতে নেত্রকোনার চল্লিশা ইউনিয়নের মোগরাটিয়ায় আত্মহত্যার ঘটনাটি ঘটেছে। ঘটনার আগে লেখাপড়া সংক্রান্ত বিষয়ে মায়ের সঙ্গে রাগারাগি করেন তুরাবি। পরে রাত ১০টার দিকে তিনি নিজ কক্ষের দরজা বন্ধ করে দেন। দরজা বন্ধ থাকায় পরিবারের সদস্যরা বার বার ডাকাডাকি করলেও কোনো সাড়া-শব্দ মেলেনি। পরবর্তীতে রাত ৩টার দিকে কক্ষের দরজা ভেঙে তুরাবির ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ বিষয়ে নেত্রকোনা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. তাজুল ইসলাম বলেন, ‘গতকাল (বুধবার) রাতে কাটলি এলাকা থেকে একজনের আত্মহত্যার খবর আসে। সঙ্গে সঙ্গে আমাদের লোকজন গিয়ে কক্ষের দরজা ভেঙে মেয়েটির ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে। তার বাবা একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করেছেন। কারও বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ না থাকায় মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়নি।