আপডেট

x


‘কোভিড-১৯’ এ মারা গেলে ফোন দিলেই পৌছে যাবে ‘কোভিড-১৯ এর কুলাউড়া লাশ দাফন টিম’

সোমবার, ১৩ এপ্রিল ২০২০ | ১২:৩২ পূর্বাহ্ণ | 946 বার

‘কোভিড-১৯’ এ মারা গেলে ফোন দিলেই পৌছে যাবে ‘কোভিড-১৯ এর কুলাউড়া লাশ দাফন টিম’

রেজাউল আম্বিয়া রাজু : করোনা ভাইরাস জনীত ভয়াবহ মহামারীতে কুলাউড়া উপজেলার অসহায় মানুষের পাশে দাড়ানোর জন্য স্ব-প্রনোদিত হয়ে অত্র এলাকার কিছু সাহসী যুবক লাশ দাফনের এক মহতী ও প্রশংশনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। কুলাউড়া উপজেলায় করোনা ভাইরাস রোগে আক্রান্ত হয়ে কেহ মারা গেলে তাদের দাফন-কাফনের জন্য শহরের উত্তর বাজারের প্রমীজ ষ্টীলের স্বত্বাধিকারী মোঃ ইকবাল হোসেন সুমনের নেতৃত্বে ১৫ সদ্যসের ‘কোভিড-১৯ লাশ দাফন কমিটি’ গঠন করা হয়েছে। কমিটি টিম লিডার সুমন জানান কোভিড-১৯ রোগে মৃত ব্যাক্তির দাফন-কাফনে যেহেতু আত্মীয়-স্বজন সহ পাড়া-প্রতিবেশীরা বিভিন্ন বাধ্য-বাধকতার কারনে এগিয়ে আসেনা, সেহেতু তাদের কাজ ধর্মীয় রীতিতে সু-সম্পন্ন করার জন্য আমরা স্ব-উদ্দোগে পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি। এতে কুলাউড়া সহ পার্শ্বর্তী কোনো এলাকার মানুষ করোনা রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলে ফোন পাওয়া মাত্র আমরা তার গোসল থেকে শুরু করে দাফন-কাফনের জন্য ঐ ব্যাক্তির বাড়ীতে উপস্থিত হয়ে মৃত ব্যাক্তির সকল কাজ আমাদের টিমের মাধ্যম সু-সম্পন্ন করে দিব। তিনি আরও জানান আমাদের এই উদ্দোগের সংবাদ আমাদের টিমের বিভিন্ন সদস্যদের ফেইজবোকের নিজস্ব আইডি থেকে প্রকাশ হওয়ার পর ফেইজবোক আইডির মধ্যে অনেক বন্ধু নিজে থেকেই আমাদের ‘কোভিড-১৯ লাশ দাফন কমিটি’কে বিভিন্ন সাপোর্ট দেওয়ার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করেছেন এবং নিয়মিত আমাদের উৎসাহিত করছেন। ইতিমধ্যে ২জন প্রবাসীসহ মোট ৩জন মহান ব্যাক্তি আমাদের ১৫ সদস্য কমিটির মধ্যে ১০ জন সদস্যকে নিজেদের সু-রক্ষায় পিপিই, মাক্স, জুতা, ক্যাপ ও গ্লাবস দেয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। ৩ জনের মধ্যে কাতার প্রবাসি ১ জন-নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক, লেবানন প্রবাসি জহিরুল ইসলাম জহির ও স্থানীয় মামুন আবু রুকাইয়া উল্লেখযোগ্য। এছাড়াও যদি কোন হৃদয়বান ব্যাক্তি আমাদের ১৫ সদস্যে কমিটির অবশিষ্ট ৫জন সদস্যের তাদের নিজেদের সু-রক্ষার সরঞ্জামাদি প্রধানে এগিয়ে আসেন তাহলে তাদের প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ থাকবো। আমি আরেকটি কথা এখানে বলতেচাই- আমাদের কমিটির অন্যতম সদস্য স্থানীয় ৩নং ওয়াডের পৌর কাউন্সিলার মঞ্জুরুল আলম চৌ: খোকন বলেছেন করোনায় আক্রান্ত লাশ দাফনের কাজে আমার নিজস্ব এম্বুলেন্স সব সময় প্রস্তুত আছে। তিনি আর জানান, এ বিষয়ে কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ টি এম ফরহাদ চৌঃ ও কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ ও পঃপঃ কর্মকর্তা ডাঃ নুরুল হকের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা প্রশাসনিক সকল ধরনের সহযোগীতার আশ্বাস প্রধান করেছেন। ‘কোভিড-১৯ লাশ দাফন কমিটি’র অন্যান্য সদস্যরা হলেন কুলাউড়া পৌরসভার পৌর কাউন্সিলার মন্ঞ্জুরুল আলম চৌঃ খোকন, সাংবাদিক রেজাউল আম্বিয়া রাজু, মোঃ আতাউর রহমান আতা, হাফিজ মোঃ ইকবাল হোসেন, মেহেদি হাসান খালিক, হাফিজ মোঃ আব্দুল কাইয়ুম, মোঃ অলিউর রহমান, মোঃ মুস্তফা কামাল, সুইট আহমদ, মোঃ রাহাত আহমদ, মোঃ রশিদ আহমদ, মোঃ ফাহিম চৌঃ, হুসাইন আহমদ, সিপু ও রাজু আহমদ। কোভিড-১৯ আক্রান্ত লাশের দাফনের জন্য এবং লাশ দাফন কমিটির সদ্যসের লাশ দাফনের সংশ্লিষ্ট সরঞ্জামাদি সহযোগীতা করার জন্য প্রয়োজনে যোগাযোগ করতে পারেন কমিটির টিম লিডার মোঃ ইকবাল হোসেন সুমন (০১৭১১৩৬৬১৩৩) এবং কাউন্সিলার মঞ্জুরুল আলম চৌঃ খোকন (০১৭১১৩৬০৬৮০) এর সাথে। কমিটির টিম লিডার সুমন বলেন- আমরা সর্বমহলের আন্তরিক সহযোগীতা ও দোয়া কামনা করছি।



মন্তব্য করতে পারেন...

comments


deshdiganto.com © 2019 কপিরাইট এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত

design and development by : http://webnewsdesign.com