ঢাকা , শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর মুটো ফোনের আসক্তি দূর করবেন যেভাবে… এই অভ্যাসগুলোর চর্চা নিয়মিত করা উচিৎ স্বামী-স্ত্রীর বয়সের পার্থক্য থাকা জরুরি কেনো ? পুনাক এর উদ্যোগে দুস্হ ও অসহায় নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরন করা হয়েছে কুলাউড়ার টিলাগাঁও এ সরকারি গাছ বিক্রি করলেন প্রধান শিক্ষক লটারি বাইক জিতলো মা’ সে কারণে কপাল পুড়লো মেয়ের ফজরের নামাজে যাওয়ার সময় রাস্তায় কুকুর দলের আক্রমনে প্রান গেলো ইজাজুলের সাবেক সাংসদ সেলিমা আহমাদ মেরীর সাথে পর্তুগাল আওয়ামিলীগের মতবিনিময় সভা

কুয়েত প্রবাসীকে সহযোগিতার হাতবাড়িয়ে দিলেন নির্বাহী অফিসার ফরহাদ চৌধুরী

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেটের সময় : ০১:২৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ জানুয়ারী ২০২০
  • / ৪৬১ টাইম ভিউ

কুয়েত প্রবাসী সালুক মিয়া। সিলেটের মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলার কর্মধা ইউনিয়নের নুনা গ্রামের বাসিন্দা। গত ৪ মাস আগে দেশে ছুটিতে আসেন কুয়েত থেকে ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হয়ে নিজ শহর মৌলভীবাজার আসেন। সালুক মিয়ার পাসপোর্ট এর মধ্যে ছুটির ফিরতি ফ্লাইটের তারিখ ৭ জানুয়ারি বিকেল ৪ টায়, তবে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে উপস্থিত থাকতে হবে ৩ ঘন্টা আগে . সালুক মিয়া সরল সুজা মানুষ , মনে করছিলেন কুলাউড়া থেকে এক দিনের ভিতরে ঢাকায় শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যেতে পারবেন, কিন্তু কুলাউড়ায় রেল স্টেশনে এসে পড়লেন হতাশায়। সালুক মিয়ার ঢাকা যাওয়ার জন্য কুলাউড়ায় ৬ জানুয়ারি সোমবার রাতে কুলাউড়া রেল স্টেশনে এসে ঢাকা যাওয়ার ট্রেনের কোনো টিকিট পাচ্ছিলেন না, কাউন্টারে গেলে ঢাকার যাওয়ার ট্রেনের টিকিট পাওয়া যায়নি। এমতাবস্থায় তিনি কান্নাকাটি শুরু করেন এসময় সালুক মিয়ার পরিচিত একজন সাংবাদিকের সাথে দেখা, সালুক মিয়ার চোখের পানি দেখে সাংবাদিক প্রশ্ন করলে সালুক মিয়া উত্তরে বলেন ভাই আমার কুয়েতের ফ্লাইট ৭ জানুয়ারি ৪ টায় বিকেলে, আমার মনে হয় আর ঢাকা যাওয়া হবেনা আমার কুয়েত যাওয়া ফ্লাইট বাতিল হতে পারে। এসময় সালুক মিয়াকে শান্তনা দিয়ে সাংবাদিক বলেন চিন্তা করবেনা দেখি কি করা যায়। এ সময় সাংবাদিকের পরিচিত সিলেটের কৃতী সন্তান কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার এটিএম ফরহাদ চৌধুরীর কাছে ফোন দিয়ে সব কিছু বুঝিয়ে বলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার এটিএম ফরহাদ চৌধুরী সালুক মিয়ার ঢাকা যাওয়ার ব্যবস্থা করেন। সালুক মিয়া হতাশা থেকে মুক্ত হন, এবং সালুক মিয়া কুয়েত যাওয়ার ফ্লাইট। নিশ্চিত হয়। সালুক মিয়ার পরিবারের পক্ষ থেকে কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার এটিএম ফরহাদ চৌধুরীকে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন এই রকম নির্বাহী অফিসার বাংলাদেশে থাকলে শুধু প্রবাসী নয় দেশের মানুষও প্রশাসনের কাছ থেকে সহযোগিতা পাবে। পরিশেষে সালুক মিয়ার পরিবারের পক্ষ থেকে নির্বাহী অফিসার ফরহাদ চৌধুরীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং নির্বাহী অফিসারের দীর্ঘায়ু কামনা করেন। কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার এটিএম ফরহাদ চৌধুরী সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়ে কুয়েত প্রবাসীর জন্য যা করলেন তা আজ সকল প্রশাসনের সদস্যদের কাছে অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন। আমরা আশা করব রেল স্টেশনের সকল কর্মকর্তা অতি সাবধানতার সহিত দায়িত্ব পালন করবেন যাতে একজন প্রবাসী ও আর কোন সমস্যার সম্মুখীন না হন।

পোস্ট শেয়ার করুন

কুয়েত প্রবাসীকে সহযোগিতার হাতবাড়িয়ে দিলেন নির্বাহী অফিসার ফরহাদ চৌধুরী

আপডেটের সময় : ০১:২৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ জানুয়ারী ২০২০

কুয়েত প্রবাসী সালুক মিয়া। সিলেটের মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলার কর্মধা ইউনিয়নের নুনা গ্রামের বাসিন্দা। গত ৪ মাস আগে দেশে ছুটিতে আসেন কুয়েত থেকে ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হয়ে নিজ শহর মৌলভীবাজার আসেন। সালুক মিয়ার পাসপোর্ট এর মধ্যে ছুটির ফিরতি ফ্লাইটের তারিখ ৭ জানুয়ারি বিকেল ৪ টায়, তবে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে উপস্থিত থাকতে হবে ৩ ঘন্টা আগে . সালুক মিয়া সরল সুজা মানুষ , মনে করছিলেন কুলাউড়া থেকে এক দিনের ভিতরে ঢাকায় শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যেতে পারবেন, কিন্তু কুলাউড়ায় রেল স্টেশনে এসে পড়লেন হতাশায়। সালুক মিয়ার ঢাকা যাওয়ার জন্য কুলাউড়ায় ৬ জানুয়ারি সোমবার রাতে কুলাউড়া রেল স্টেশনে এসে ঢাকা যাওয়ার ট্রেনের কোনো টিকিট পাচ্ছিলেন না, কাউন্টারে গেলে ঢাকার যাওয়ার ট্রেনের টিকিট পাওয়া যায়নি। এমতাবস্থায় তিনি কান্নাকাটি শুরু করেন এসময় সালুক মিয়ার পরিচিত একজন সাংবাদিকের সাথে দেখা, সালুক মিয়ার চোখের পানি দেখে সাংবাদিক প্রশ্ন করলে সালুক মিয়া উত্তরে বলেন ভাই আমার কুয়েতের ফ্লাইট ৭ জানুয়ারি ৪ টায় বিকেলে, আমার মনে হয় আর ঢাকা যাওয়া হবেনা আমার কুয়েত যাওয়া ফ্লাইট বাতিল হতে পারে। এসময় সালুক মিয়াকে শান্তনা দিয়ে সাংবাদিক বলেন চিন্তা করবেনা দেখি কি করা যায়। এ সময় সাংবাদিকের পরিচিত সিলেটের কৃতী সন্তান কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার এটিএম ফরহাদ চৌধুরীর কাছে ফোন দিয়ে সব কিছু বুঝিয়ে বলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার এটিএম ফরহাদ চৌধুরী সালুক মিয়ার ঢাকা যাওয়ার ব্যবস্থা করেন। সালুক মিয়া হতাশা থেকে মুক্ত হন, এবং সালুক মিয়া কুয়েত যাওয়ার ফ্লাইট। নিশ্চিত হয়। সালুক মিয়ার পরিবারের পক্ষ থেকে কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার এটিএম ফরহাদ চৌধুরীকে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন এই রকম নির্বাহী অফিসার বাংলাদেশে থাকলে শুধু প্রবাসী নয় দেশের মানুষও প্রশাসনের কাছ থেকে সহযোগিতা পাবে। পরিশেষে সালুক মিয়ার পরিবারের পক্ষ থেকে নির্বাহী অফিসার ফরহাদ চৌধুরীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং নির্বাহী অফিসারের দীর্ঘায়ু কামনা করেন। কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার এটিএম ফরহাদ চৌধুরী সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়ে কুয়েত প্রবাসীর জন্য যা করলেন তা আজ সকল প্রশাসনের সদস্যদের কাছে অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন। আমরা আশা করব রেল স্টেশনের সকল কর্মকর্তা অতি সাবধানতার সহিত দায়িত্ব পালন করবেন যাতে একজন প্রবাসী ও আর কোন সমস্যার সম্মুখীন না হন।