ঢাকা , রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কুয়েতস্হ বাংলাদেশ দূতাবাসে অনুস্টিত হলো প্রাথমিক সমাপনি পরীক্ষা

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেটের সময় : ০৪:২৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯
  • / ৪১১ টাইম ভিউ

কুয়েত থেকে : মাতৃভূমি বাংলাদেশের সাথে মিল রেখে সুদূর মধ্যেপ্রাচ্যর তৈল সমৃদ্ধ দেশ কুয়েতে গতকাল ১৭ নভেম্বর সকাল ৮ টায় বাংলাদেশ দূতাবাসের হল রুমে অনুস্টিত হলো প্রাথমিক সমাপনি পরীক্ষা ২০১৯ ।
এই সমাপনি পরীক্ষায় ১৪ জন ছাত্র/ছাত্রী অংশগ্রহন করেছে এর মধ্যে ৬ জন ছেলে ও ৮ জন মেয়ে হয়েছে ।
সকালে পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে যথার্থ ভাবে কেন্দ্র পরিদর্শন করেন দূতাবাসের কাউন্সিল ( পাসপোর্ট ) জহিরুল ইসলাম ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা সাজিদুল ইসলাম সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক সামাজিক – সাংস্কৃতিক ও বিভিন্ন গণমাধ্যম কর্মিরা ।
উলেখ্য কুয়েত বাংলাদেশ দূতাবাসে নিযুক্ত সাবেক রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল আসহাব উদ্দন, (অব: এনডিসি, পিএসসি ) উনার অক্লান্ত প্রচেস্টা ও পরিশ্রমে বাংলাদেশী ব্যাবসায়ীদের অর্থনৈতিক সহযোগিতায় মনিং গ্লোরী নার্সারি বিদ্যালয় জাঁকজমকপূর্ণ ভাবে উদ্ভোধন হয় । এবং তখন বিদ্যালয়ে বাংলাদেশী ছাত্র/ছাত্রীদের উপচেভড়া ভীড় ছিলো, সাবেক রাস্ট্রদূত চলে যাবার পর কালের পরিক্রমায় বাংলাদেশী পতাকাবাহী বিদ্যালয়টি বন্ধ হয়ে যায় গত তিনবছর পূর্বেই ।
যদিও কয়েক হাজার বাংলাদেশী পরিবার বসবাস করছে কুয়েতে তার মধ্যে গুটি কয়েক পরিবার নাড়ির ঠানে নিজ উদ্যোগেই ঘরোয়াভাবে বাংলা পাঠ্যপুস্তকে শিশুদের কে বাংলা শিখিয়ে সমাপনি পরীক্ষায় অংশগ্রহন করছে ।

পোস্ট শেয়ার করুন

কুয়েতস্হ বাংলাদেশ দূতাবাসে অনুস্টিত হলো প্রাথমিক সমাপনি পরীক্ষা

আপডেটের সময় : ০৪:২৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯

কুয়েত থেকে : মাতৃভূমি বাংলাদেশের সাথে মিল রেখে সুদূর মধ্যেপ্রাচ্যর তৈল সমৃদ্ধ দেশ কুয়েতে গতকাল ১৭ নভেম্বর সকাল ৮ টায় বাংলাদেশ দূতাবাসের হল রুমে অনুস্টিত হলো প্রাথমিক সমাপনি পরীক্ষা ২০১৯ ।
এই সমাপনি পরীক্ষায় ১৪ জন ছাত্র/ছাত্রী অংশগ্রহন করেছে এর মধ্যে ৬ জন ছেলে ও ৮ জন মেয়ে হয়েছে ।
সকালে পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে যথার্থ ভাবে কেন্দ্র পরিদর্শন করেন দূতাবাসের কাউন্সিল ( পাসপোর্ট ) জহিরুল ইসলাম ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা সাজিদুল ইসলাম সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক সামাজিক – সাংস্কৃতিক ও বিভিন্ন গণমাধ্যম কর্মিরা ।
উলেখ্য কুয়েত বাংলাদেশ দূতাবাসে নিযুক্ত সাবেক রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল আসহাব উদ্দন, (অব: এনডিসি, পিএসসি ) উনার অক্লান্ত প্রচেস্টা ও পরিশ্রমে বাংলাদেশী ব্যাবসায়ীদের অর্থনৈতিক সহযোগিতায় মনিং গ্লোরী নার্সারি বিদ্যালয় জাঁকজমকপূর্ণ ভাবে উদ্ভোধন হয় । এবং তখন বিদ্যালয়ে বাংলাদেশী ছাত্র/ছাত্রীদের উপচেভড়া ভীড় ছিলো, সাবেক রাস্ট্রদূত চলে যাবার পর কালের পরিক্রমায় বাংলাদেশী পতাকাবাহী বিদ্যালয়টি বন্ধ হয়ে যায় গত তিনবছর পূর্বেই ।
যদিও কয়েক হাজার বাংলাদেশী পরিবার বসবাস করছে কুয়েতে তার মধ্যে গুটি কয়েক পরিবার নাড়ির ঠানে নিজ উদ্যোগেই ঘরোয়াভাবে বাংলা পাঠ্যপুস্তকে শিশুদের কে বাংলা শিখিয়ে সমাপনি পরীক্ষায় অংশগ্রহন করছে ।