ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর মুটো ফোনের আসক্তি দূর করবেন যেভাবে… এই অভ্যাসগুলোর চর্চা নিয়মিত করা উচিৎ স্বামী-স্ত্রীর বয়সের পার্থক্য থাকা জরুরি কেনো ? পুনাক এর উদ্যোগে দুস্হ ও অসহায় নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরন করা হয়েছে কুলাউড়ার টিলাগাঁও এ সরকারি গাছ বিক্রি করলেন প্রধান শিক্ষক লটারি বাইক জিতলো মা’ সে কারণে কপাল পুড়লো মেয়ের ফজরের নামাজে যাওয়ার সময় রাস্তায় কুকুর দলের আক্রমনে প্রান গেলো ইজাজুলের সাবেক সাংসদ সেলিমা আহমাদ মেরীর সাথে পর্তুগাল আওয়ামিলীগের মতবিনিময় সভা

কুলাউড়া পৌরসভার ময়লা ফেলা নিয়ে সৃষ্ট জটিলতা নিরসন

কুলাউড়া প্রতিনিধি:
  • আপডেটের সময় : ০৩:৪৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ জুলাই ২০২০
  • / ৩০৯ টাইম ভিউ
কুলাউড়া পৌরসভার ময়লা-আবর্জনা ফেলাকে কেন্দ্র করে উত্তর কুলাউড়া এলাকাবাসীর সাথে পৌর কর্তৃপক্ষের সৃষ্ট জটিলতা অবশেষে নিরসন হয়েছে। বর্তমানে যে স্থানে ময়লা-আবর্জনা ফেলা হচ্ছে সেই স্থানের পরিবর্তে পৌর কর্তৃপক্ষ নতুন স্থানে ময়লা-আবর্জনা ফেলবে। সে লক্ষে জায়গা ক্রয়ের সিদ্ধান্ত নেয় পৌর কর্তৃপক্ষ। ইতোমধ্যে জায়গা নির্ধারন করে দামও চুড়ান্ত করা হয়েছে। এসব বিষয় নিয়ে উত্তর কুলাউড়া এলাকাবাসী ও স্থানীয় একটি হাইস্কুলের প্রতিনিধিসহ গণ্যমান্য লোকজনের সঙ্গে মতবিনিময় করে পৌর কর্তৃপক্ষ।
পৌরভবনে গত শনিবার বিকেলে কুলাউড়া পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব শফি আলম ইউনুছের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় কয়েকটি সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সভায় পৌর কাউন্সিলরগণ উপস্থিত ছিলেন। মেয়র জানান, কুলাউড়া – জুড়ী সড়কের পশ্চিম পাশে ২০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে (আছুরীঘাট সংলগ্ন) ৭৫ শতক জায়গা নির্ধারন করে তা ক্রয়ের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। জায়গাটির সীমানা প্রাচীর নির্মানসহ ময়লা-আবর্জনা ফেলার জন্য প্রস্তুত করতে কিছুদিন সময় লাগবেই। ওই সময়টুকুতে এলাকাবাসীর ভোগান্তি যাতে কম হয়, সেই চেষ্টা করবো। উল্লেখ্য, পৌর মেয়র আলহাজ্ব শফি আলম ইউনুছ ময়লা-আবর্জনার জায়গা ক্রয়ের জন্য ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ১০ লক্ষ টাকা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। বাকী অর্থের মধ্যে ৫ লক্ষ টাকা পৌর ফান্ড থেকে ও ৫ লক্ষ টাকা জায়গার মালিক প্রয়াত রমিজ উদ্দিন ইন্জিনিয়ারের ছেলে বাবু জনস্বার্থে ছাড় দিচ্ছেন বলে মেয়র জানান। সভায় উপস্থিত ছিলেন কুলাউড়া পৌরসভার প্যানেল মেয়র জয়নাল আবেদীন বাচ্চু, প্যানেল মেয়র-২ মনজুর আলম চৌধুরী খোকন, কাউন্সিলর ইকবাল আহমদ শামীম, কায়সার আরিফ, শামছুল ইসলাম সমছু, রাসেল আহমদ চৌধুরী, লোকমান আলী, তানভীর আহমদ শাওন, হারুনুর রশীদ, রাবেয়া বেগম, দিলারা বেগম, আনোয়ারা বেগম, আওয়ামীগ নেতা আব্দুল বারী, মনসুর আহমদ চৌধুরী, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আব্দুস শহীদ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা হোসেন মনসুর, ঠিকাদার খালেদ আহমদ, মো.শাহজাহান, উত্তর কুলাউড়া এলাকাবাসীর পক্ষে করিম লস্কর, মুর্শেদ আলম রাজা, বাদশা মিয়া, ইব্রাহীম আলী, জাহাঙ্গীর হোসেন, ইবাদুল আলম সুলাব, শিক্ষক আব্দুল আহাদ, কামরুজ্জামান সুমন, ইমরান হোসেন, সালমান আহমদ, অপু আহমদ, রিপন আহমদ, রাজু আহমদ দুলাল, সারোয়ার আলম প্রমূখ। উল্লেখ্য, পৌর কর্তৃপক্ষ ময়লা-আবর্জনা ফেলার বর্তমান স্থানে শিগগিরই ওয়াটার সাপ্লাই প্লান্ট তৈরি করে পৌরবাসীকে সুপেয় পানির ব্যবস্হা করে দিবে বলে মেয়র আলহাজ্ব শফি আলম ইউনুছ জানান।#

পোস্ট শেয়ার করুন

কুলাউড়া পৌরসভার ময়লা ফেলা নিয়ে সৃষ্ট জটিলতা নিরসন

আপডেটের সময় : ০৩:৪৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ জুলাই ২০২০
কুলাউড়া পৌরসভার ময়লা-আবর্জনা ফেলাকে কেন্দ্র করে উত্তর কুলাউড়া এলাকাবাসীর সাথে পৌর কর্তৃপক্ষের সৃষ্ট জটিলতা অবশেষে নিরসন হয়েছে। বর্তমানে যে স্থানে ময়লা-আবর্জনা ফেলা হচ্ছে সেই স্থানের পরিবর্তে পৌর কর্তৃপক্ষ নতুন স্থানে ময়লা-আবর্জনা ফেলবে। সে লক্ষে জায়গা ক্রয়ের সিদ্ধান্ত নেয় পৌর কর্তৃপক্ষ। ইতোমধ্যে জায়গা নির্ধারন করে দামও চুড়ান্ত করা হয়েছে। এসব বিষয় নিয়ে উত্তর কুলাউড়া এলাকাবাসী ও স্থানীয় একটি হাইস্কুলের প্রতিনিধিসহ গণ্যমান্য লোকজনের সঙ্গে মতবিনিময় করে পৌর কর্তৃপক্ষ।
পৌরভবনে গত শনিবার বিকেলে কুলাউড়া পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব শফি আলম ইউনুছের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় কয়েকটি সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সভায় পৌর কাউন্সিলরগণ উপস্থিত ছিলেন। মেয়র জানান, কুলাউড়া – জুড়ী সড়কের পশ্চিম পাশে ২০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে (আছুরীঘাট সংলগ্ন) ৭৫ শতক জায়গা নির্ধারন করে তা ক্রয়ের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। জায়গাটির সীমানা প্রাচীর নির্মানসহ ময়লা-আবর্জনা ফেলার জন্য প্রস্তুত করতে কিছুদিন সময় লাগবেই। ওই সময়টুকুতে এলাকাবাসীর ভোগান্তি যাতে কম হয়, সেই চেষ্টা করবো। উল্লেখ্য, পৌর মেয়র আলহাজ্ব শফি আলম ইউনুছ ময়লা-আবর্জনার জায়গা ক্রয়ের জন্য ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ১০ লক্ষ টাকা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। বাকী অর্থের মধ্যে ৫ লক্ষ টাকা পৌর ফান্ড থেকে ও ৫ লক্ষ টাকা জায়গার মালিক প্রয়াত রমিজ উদ্দিন ইন্জিনিয়ারের ছেলে বাবু জনস্বার্থে ছাড় দিচ্ছেন বলে মেয়র জানান। সভায় উপস্থিত ছিলেন কুলাউড়া পৌরসভার প্যানেল মেয়র জয়নাল আবেদীন বাচ্চু, প্যানেল মেয়র-২ মনজুর আলম চৌধুরী খোকন, কাউন্সিলর ইকবাল আহমদ শামীম, কায়সার আরিফ, শামছুল ইসলাম সমছু, রাসেল আহমদ চৌধুরী, লোকমান আলী, তানভীর আহমদ শাওন, হারুনুর রশীদ, রাবেয়া বেগম, দিলারা বেগম, আনোয়ারা বেগম, আওয়ামীগ নেতা আব্দুল বারী, মনসুর আহমদ চৌধুরী, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আব্দুস শহীদ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা হোসেন মনসুর, ঠিকাদার খালেদ আহমদ, মো.শাহজাহান, উত্তর কুলাউড়া এলাকাবাসীর পক্ষে করিম লস্কর, মুর্শেদ আলম রাজা, বাদশা মিয়া, ইব্রাহীম আলী, জাহাঙ্গীর হোসেন, ইবাদুল আলম সুলাব, শিক্ষক আব্দুল আহাদ, কামরুজ্জামান সুমন, ইমরান হোসেন, সালমান আহমদ, অপু আহমদ, রিপন আহমদ, রাজু আহমদ দুলাল, সারোয়ার আলম প্রমূখ। উল্লেখ্য, পৌর কর্তৃপক্ষ ময়লা-আবর্জনা ফেলার বর্তমান স্থানে শিগগিরই ওয়াটার সাপ্লাই প্লান্ট তৈরি করে পৌরবাসীকে সুপেয় পানির ব্যবস্হা করে দিবে বলে মেয়র আলহাজ্ব শফি আলম ইউনুছ জানান।#