ঢাকা , রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
পর্তুগাল এ ফ্রেন্ডশিপ ক্রিকেট ক্লাবের জার্সি উন্মোচন লিসবনে আত্মপ্রকাশ হয় সামাজিক সংগঠন “গোলাপগঞ্জ কমিউনিটি কেয়ারর্স পর্তুগাল “ উচ্ছ্বাস আর আনন্দে বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখের উদযাপন করেছে পর্তুগাল যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা রিডানডেন্ট ক্লোথিং আর মজুর মামার ‘বিশ্বকাপ’ ইউরোপের সবচেয়ে বড় ঈদুল ফিতরের নামাজ পর্তুগালে অনুষ্ঠিত হয় বর্ণাঢ্য আয়োজনে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের ইফতার ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন ঈদের কাপড় কিনার জন্য মা’য়ের উপর অভিমান করে মেয়ের আত্মহত্যা

কুলাউড়ায় স্বামীর নির্যাতনে নবজাতক সন্তানের জননীর মৃত্যু

কুলাউড়া প্রতিনিধি:
  • আপডেটের সময় : ১১:০৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ৪ নভেম্বর ২০২০
  • / ৩৮১ টাইম ভিউ

কুলাউড়ায় স্বামীর অমানুষিক নির্যাতনে দেড় মাসের কন্যা সন্তানের জননী মুন্নী বেগম (২০) নামে এক গৃহবধূর মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার (৩ নভেম্বর) সন্ধ্যায় গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় সিলেট নিয়ে যাওয়ার সময় পথিমধ্যে ওই গৃহবধূর মৃত্যু হয়। নিহত মুন্নী উপজেলার জয়চন্ডী ইউনিয়নের দানাপুর গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল হালিমের মেয়ে। এ ঘটনার পর থেকে মুন্নীর স্বামী ইয়াইদ আলী (২৫) পলাতক রয়েছে।

স্থানীয় ও গৃহবধূর পরিবার সুত্রে জানা যায়, একই গ্রামের মৃত শফত আলীর ছেলে ইয়াইদ আলীর সাথে গত এক বছর আগে মুন্নীর বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে যৌতুকের দাবিতে প্রায়ই মুন্নীকে নির্যাতন করতো তার স্বামী। মুন্নি নির্যাতন থেকে বাঁচতে প্রায় সময় পিতার বাড়ী থেকে টাকা নিয়ে স্বামীকে দিতেন। দেড় মাস আগে তাদের ঘরে এক কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। গত দুদিন আগে ইয়াইদ টাকার জন্য স্ত্রীকে শারিরীক নির্যাতন করেন। এতে মুন্নী অসুস্থ হয়ে পড়লে মঙ্গলবার ভাইয়েরা তাঁকে (মুন্নীকে) উদ্ধার করে কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক মুন্নীর অবস্থা সঙ্কটাপন্ন হওয়ায় তাঁকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। পরে তাঁকে সিলেট নিয়ে যাওয়ার পথে মুন্নীর মৃত্যু হয়

কুলাউড়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাদেক কাওসার দস্তগীর জানান, গৃহবধুর লাশ ময়নাতদন্ত শেষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।#

পোস্ট শেয়ার করুন

কুলাউড়ায় স্বামীর নির্যাতনে নবজাতক সন্তানের জননীর মৃত্যু

আপডেটের সময় : ১১:০৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ৪ নভেম্বর ২০২০

কুলাউড়ায় স্বামীর অমানুষিক নির্যাতনে দেড় মাসের কন্যা সন্তানের জননী মুন্নী বেগম (২০) নামে এক গৃহবধূর মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার (৩ নভেম্বর) সন্ধ্যায় গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় সিলেট নিয়ে যাওয়ার সময় পথিমধ্যে ওই গৃহবধূর মৃত্যু হয়। নিহত মুন্নী উপজেলার জয়চন্ডী ইউনিয়নের দানাপুর গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল হালিমের মেয়ে। এ ঘটনার পর থেকে মুন্নীর স্বামী ইয়াইদ আলী (২৫) পলাতক রয়েছে।

স্থানীয় ও গৃহবধূর পরিবার সুত্রে জানা যায়, একই গ্রামের মৃত শফত আলীর ছেলে ইয়াইদ আলীর সাথে গত এক বছর আগে মুন্নীর বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে যৌতুকের দাবিতে প্রায়ই মুন্নীকে নির্যাতন করতো তার স্বামী। মুন্নি নির্যাতন থেকে বাঁচতে প্রায় সময় পিতার বাড়ী থেকে টাকা নিয়ে স্বামীকে দিতেন। দেড় মাস আগে তাদের ঘরে এক কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। গত দুদিন আগে ইয়াইদ টাকার জন্য স্ত্রীকে শারিরীক নির্যাতন করেন। এতে মুন্নী অসুস্থ হয়ে পড়লে মঙ্গলবার ভাইয়েরা তাঁকে (মুন্নীকে) উদ্ধার করে কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক মুন্নীর অবস্থা সঙ্কটাপন্ন হওয়ায় তাঁকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। পরে তাঁকে সিলেট নিয়ে যাওয়ার পথে মুন্নীর মৃত্যু হয়

কুলাউড়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাদেক কাওসার দস্তগীর জানান, গৃহবধুর লাশ ময়নাতদন্ত শেষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।#