ঢাকা , শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা রিডানডেন্ট ক্লোথিং আর মজুর মামার ‘বিশ্বকাপ’ ইউরোপের সবচেয়ে বড় ঈদুল ফিতরের নামাজ পর্তুগালে অনুষ্ঠিত হয় বর্ণাঢ্য আয়োজনে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের ইফতার ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন ঈদের কাপড় কিনার জন্য মা’য়ের উপর অভিমান করে মেয়ের আত্মহত্যা লিসবনে বন্ধু মহলের আয়োজনে বিশাল ইফতার ও দোয়া মাহফিল মান অভিমান ভুলে সবাই একই প্লাটফর্মে,সংবাদ সম্মেলনে পর্তুগাল বিএনপির নবগঠিত আহবায়ক কমিটি ইতালির ভিসেন্সায় সিলেট ডায়নামিক অ্যাসোসিয়েশনের আয়োজনে ইফতার ও দোয়া অনুষ্ঠিত

কুলাউড়ায় বাড়িতে ঢুকে সন্ত্রাসীর হামলা

কুলাউড়া প্রতিনিধি:
  • আপডেটের সময় : ১০:৪৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ১ নভেম্বর ২০২০
  • / ৩৯৫ টাইম ভিউ

কুলাউড়া উপজেলার ভুকশিমইল ইউনিয়নে মধ্যরাতে একটি বাড়িতে অনধিকার প্রবেশ করে ২ ভাইকে কুপিয়ে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ছাবরু মিয়া বাদি হয়ে ১২ জনের নামোল্লেখ করে কুলাউড়া থানায় একটি মামলা (নং- ২২) দায়ের করেছেন।

মামলার এজহার ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, উপজেলার ভূকশিমইল ইউনিয়নের মীরশংকর এলাকার বাবলু মিয়ার সাথে স্থানীয় আকরাম মিয়া গংদের বিভিন্ন বিষয়াদি নিয়ে বিরোধ চলছিলো। এমতাবস্থায় গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১২ টায় আকরাম মিয়া ১২-১৪ জন লোক নিয়ে বাবলুর বসত ঘরে অনধিকারভাবে প্রবেশ করে তাকে এবং তার ছোট ভাই উছাদ মিয়াকে রাম-দা, চাকু ও লোহার রড দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে।

এসময় তাদের শোর চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে হামলাকারী সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। তাৎক্ষণিক স্থানীয় লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে কুলাউড়া হাসপাতালে ভর্তি করেন। তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় সিলেট ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

এঘটনায় বাবলু মিয়ার ভাই ছাবরু মিয়া বাদি হয়ে কুলাউড়া থানায় একটি মামলা (নং- ২২, তাং-৩১/১০/২০২০ইং) দায়ের করেন। মামলার আসামীরা হলেন, মনসুর এলাকার সুন্দর মিয়া (৩২), মীরশংকর এলাকার আকরাম মিয়া (৩২), রিবুল মিয়া (২৮), শামছুল মিয়া (৩৪), শিমুল মিয়া (২৪), তোফায়েল মিয়া (২১), জুবায়েল মিয়া (২৩), সাদ্দাম হোসেন (২৪), আফাং মিয়া (৩৫), আজাদ মিয়া (২৫) এবং ছামরুল মিয়া (২৫)।

এব্যপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মো. কামরুল হাসান ঘটনার সত্যতা নিশ্চত করে জানান, আসামীদের আটকে পুলিশের পক্ষ থেকে দফায় দফায় অভিযান চালানো হচ্ছে। বিভিন্ন সোর্স লাগানো হয়েছে, খুব শীগ্গিরই তাদেরকে আটক করতে সক্ষম হবো।#

পোস্ট শেয়ার করুন

কুলাউড়ায় বাড়িতে ঢুকে সন্ত্রাসীর হামলা

আপডেটের সময় : ১০:৪৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ১ নভেম্বর ২০২০

কুলাউড়া উপজেলার ভুকশিমইল ইউনিয়নে মধ্যরাতে একটি বাড়িতে অনধিকার প্রবেশ করে ২ ভাইকে কুপিয়ে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ছাবরু মিয়া বাদি হয়ে ১২ জনের নামোল্লেখ করে কুলাউড়া থানায় একটি মামলা (নং- ২২) দায়ের করেছেন।

মামলার এজহার ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, উপজেলার ভূকশিমইল ইউনিয়নের মীরশংকর এলাকার বাবলু মিয়ার সাথে স্থানীয় আকরাম মিয়া গংদের বিভিন্ন বিষয়াদি নিয়ে বিরোধ চলছিলো। এমতাবস্থায় গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১২ টায় আকরাম মিয়া ১২-১৪ জন লোক নিয়ে বাবলুর বসত ঘরে অনধিকারভাবে প্রবেশ করে তাকে এবং তার ছোট ভাই উছাদ মিয়াকে রাম-দা, চাকু ও লোহার রড দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে।

এসময় তাদের শোর চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে হামলাকারী সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। তাৎক্ষণিক স্থানীয় লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে কুলাউড়া হাসপাতালে ভর্তি করেন। তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় সিলেট ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

এঘটনায় বাবলু মিয়ার ভাই ছাবরু মিয়া বাদি হয়ে কুলাউড়া থানায় একটি মামলা (নং- ২২, তাং-৩১/১০/২০২০ইং) দায়ের করেন। মামলার আসামীরা হলেন, মনসুর এলাকার সুন্দর মিয়া (৩২), মীরশংকর এলাকার আকরাম মিয়া (৩২), রিবুল মিয়া (২৮), শামছুল মিয়া (৩৪), শিমুল মিয়া (২৪), তোফায়েল মিয়া (২১), জুবায়েল মিয়া (২৩), সাদ্দাম হোসেন (২৪), আফাং মিয়া (৩৫), আজাদ মিয়া (২৫) এবং ছামরুল মিয়া (২৫)।

এব্যপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মো. কামরুল হাসান ঘটনার সত্যতা নিশ্চত করে জানান, আসামীদের আটকে পুলিশের পক্ষ থেকে দফায় দফায় অভিযান চালানো হচ্ছে। বিভিন্ন সোর্স লাগানো হয়েছে, খুব শীগ্গিরই তাদেরকে আটক করতে সক্ষম হবো।#