ঢাকা , শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর মুটো ফোনের আসক্তি দূর করবেন যেভাবে… এই অভ্যাসগুলোর চর্চা নিয়মিত করা উচিৎ স্বামী-স্ত্রীর বয়সের পার্থক্য থাকা জরুরি কেনো ? পুনাক এর উদ্যোগে দুস্হ ও অসহায় নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরন করা হয়েছে কুলাউড়ার টিলাগাঁও এ সরকারি গাছ বিক্রি করলেন প্রধান শিক্ষক লটারি বাইক জিতলো মা’ সে কারণে কপাল পুড়লো মেয়ের ফজরের নামাজে যাওয়ার সময় রাস্তায় কুকুর দলের আক্রমনে প্রান গেলো ইজাজুলের সাবেক সাংসদ সেলিমা আহমাদ মেরীর সাথে পর্তুগাল আওয়ামিলীগের মতবিনিময় সভা

কুলাউড়ার হোসেনপুর ফ্রেন্ডস ক্লাবের খাদ্য উপহার সামগ্রী বিতরন

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেটের সময় : ০৯:২১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২০
  • / ৭৮০ টাইম ভিউ

কুলাউড়ার অসহায় কবিরুন বেগম (৭০) ও ছেলে প্রতিবন্ধি (২৫) প্রথম পেলেন খাদ্য সহায়তা। হাউ মাউ করে কেঁদে বললেন, গত ২৫দিনে কেউ দুমুটো চাল দেয়নি। ছেলেকে নিয়ে একবেলা আধবেলা খেয়ে কাটছিলো দিন। যে সহায়তা পেয়েছেন তাতে দু’মাস চলবে তার। দু’হাদ তুলে ‘উপহার সামগ্রী’ পেয়ে কাঁদলেন কুলাউড়ার কবিরুন বেগম ।

করোনা বিপর্যয়ে গ্রামে হতদরিদ্র কিংবা দিনমজুর মানুষ যখন ক্রমে অসহায় তখন প্রবাস এবং দেশে অবস্থানরত বিত্তবানরা প্রসারিত করলেন সহমর্মিতার হাত।
মুখ ফুটে সাহায্যের কথা বলতে না পারা মানুষগুলোর ঘরে যখন পৌঁছলো খাদ্য উপহার সামগ্রী তখন যেন সবাই বিষ্ময়ে হতবাক। পাশের বাড়ির প্রিয় মানুষগুলো যারা প্রবাসে এবং দেশে অবস্থান করছেন তারা এসব উপহার সামগ্রী দিয়েছেন বিপর্যয়ে ঘরে আটকে পড়াদের।

কুলাউড়া উপজেলার কাদিপুর ইউনিয়নের হোসেনপুর গ্রামে ১৭ এপ্রিল শুক্রবার হোসেনপুর ফ্রেন্ডস ক্লাবের উদ্যোগে ১৬০টি পরিবারের মাঝে বিতরণ করা হয় এসব উপহার সামগ্রী। উপহার সামগ্রীর তালিকায় ছিলো ৫০ কেজির এক বস্তা চাল, ১০ কেজি আলু, ৫লিটার তেল, ৫ কেজি পেয়াজ, ৩ কেজি ছোলা, ৩ কেজি মসুর ডাল, ২ কেজি লবণ ও সাবান। ১৬০টি পরিবারের এসব উপহার সামগ্রী ক্রয়ে তাদেও ব্যয় হয়েছে ৫লাখ ৭৭ হাজার টাকা।

ক্লাবের সদস্যরা জানান, এত বড় মহৎকাজের পেছনে হোসেনপুর ফ্রেন্ডস ক্লাবের সদস্য ও গ্রামেরই কৃতি সন্তান যারা আমেরিকা, ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে রয়েছে। সেই সাথে দেশে অবস্থানরত বিত্তবানদের অংশগ্রহণ রয়েছে।

এত বৃহৎ অনুদান বিতরণে ছিলো না কোন জাকজমক আয়োজন কিংবা প্রচারণা। ক্লাবের সদস্যরা উপহার সামগ্রীগুলো মানুষের বাড়িতে বাড়িতে পৌছে দেন।

উপহার সামগ্রীগুলো বাড়ি বাড়ি পৌছে দেন হোসেন পুর গ্রামের বাসিন্দা ও ক্লাবের দায়িত্বশীলরা। এই মহৎ কাজটি সম্পাদনে অংশ নেন আবু তাহের মামুন, এজাজ মাহমুদ চৌধুরী ফুল, ফখরুল ইসলাম, আজিজুর রহমান রুহি, আব্দুল করিম রিপন, রায়হান, মুনতাসির, নাহিদ প্রমুখ।

সংশ্লিষ্টরা জানান, এভাবে এলাকার মানুষের জন্য যদি অন্ত:ত একমাসের খাবার ব্যাবস্থা করে দেন তাহলে অসহায় ও নিম্নবিত্তদের এই দুর্যোগকালীন সময় অতিবাহিত করা সহজ হবে।

পোস্ট শেয়ার করুন

কুলাউড়ার হোসেনপুর ফ্রেন্ডস ক্লাবের খাদ্য উপহার সামগ্রী বিতরন

আপডেটের সময় : ০৯:২১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২০

কুলাউড়ার অসহায় কবিরুন বেগম (৭০) ও ছেলে প্রতিবন্ধি (২৫) প্রথম পেলেন খাদ্য সহায়তা। হাউ মাউ করে কেঁদে বললেন, গত ২৫দিনে কেউ দুমুটো চাল দেয়নি। ছেলেকে নিয়ে একবেলা আধবেলা খেয়ে কাটছিলো দিন। যে সহায়তা পেয়েছেন তাতে দু’মাস চলবে তার। দু’হাদ তুলে ‘উপহার সামগ্রী’ পেয়ে কাঁদলেন কুলাউড়ার কবিরুন বেগম ।

করোনা বিপর্যয়ে গ্রামে হতদরিদ্র কিংবা দিনমজুর মানুষ যখন ক্রমে অসহায় তখন প্রবাস এবং দেশে অবস্থানরত বিত্তবানরা প্রসারিত করলেন সহমর্মিতার হাত।
মুখ ফুটে সাহায্যের কথা বলতে না পারা মানুষগুলোর ঘরে যখন পৌঁছলো খাদ্য উপহার সামগ্রী তখন যেন সবাই বিষ্ময়ে হতবাক। পাশের বাড়ির প্রিয় মানুষগুলো যারা প্রবাসে এবং দেশে অবস্থান করছেন তারা এসব উপহার সামগ্রী দিয়েছেন বিপর্যয়ে ঘরে আটকে পড়াদের।

কুলাউড়া উপজেলার কাদিপুর ইউনিয়নের হোসেনপুর গ্রামে ১৭ এপ্রিল শুক্রবার হোসেনপুর ফ্রেন্ডস ক্লাবের উদ্যোগে ১৬০টি পরিবারের মাঝে বিতরণ করা হয় এসব উপহার সামগ্রী। উপহার সামগ্রীর তালিকায় ছিলো ৫০ কেজির এক বস্তা চাল, ১০ কেজি আলু, ৫লিটার তেল, ৫ কেজি পেয়াজ, ৩ কেজি ছোলা, ৩ কেজি মসুর ডাল, ২ কেজি লবণ ও সাবান। ১৬০টি পরিবারের এসব উপহার সামগ্রী ক্রয়ে তাদেও ব্যয় হয়েছে ৫লাখ ৭৭ হাজার টাকা।

ক্লাবের সদস্যরা জানান, এত বড় মহৎকাজের পেছনে হোসেনপুর ফ্রেন্ডস ক্লাবের সদস্য ও গ্রামেরই কৃতি সন্তান যারা আমেরিকা, ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে রয়েছে। সেই সাথে দেশে অবস্থানরত বিত্তবানদের অংশগ্রহণ রয়েছে।

এত বৃহৎ অনুদান বিতরণে ছিলো না কোন জাকজমক আয়োজন কিংবা প্রচারণা। ক্লাবের সদস্যরা উপহার সামগ্রীগুলো মানুষের বাড়িতে বাড়িতে পৌছে দেন।

উপহার সামগ্রীগুলো বাড়ি বাড়ি পৌছে দেন হোসেন পুর গ্রামের বাসিন্দা ও ক্লাবের দায়িত্বশীলরা। এই মহৎ কাজটি সম্পাদনে অংশ নেন আবু তাহের মামুন, এজাজ মাহমুদ চৌধুরী ফুল, ফখরুল ইসলাম, আজিজুর রহমান রুহি, আব্দুল করিম রিপন, রায়হান, মুনতাসির, নাহিদ প্রমুখ।

সংশ্লিষ্টরা জানান, এভাবে এলাকার মানুষের জন্য যদি অন্ত:ত একমাসের খাবার ব্যাবস্থা করে দেন তাহলে অসহায় ও নিম্নবিত্তদের এই দুর্যোগকালীন সময় অতিবাহিত করা সহজ হবে।