ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কুলাউড়ার হাসিমপুরে ঝুকিপুর্ন মনুনদীর বেড়ীবাঁধ মেরামতের কাজ শুরু

ছয়ফুল আলম সাইফুলঃ
  • আপডেটের সময় : ১১:২৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই ২০১৯
  • / ৫৬০ টাইম ভিউ

ছয়ফুল আলম সাইফুলঃ মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলার হাজীপুর ইউনিয়নের মনু-কটাকোনার হাসিমপুর নামক স্থানে মনু-নদীর বেড়ীবাঁধ আংশিক ঝুকিপুর্ণ স্থান মেরামতের কাজ শুরু করা হয়েছে।

আজ ১১ জুলাই বৃহস্পতিবার বিকালে হাজীপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল বাছিত বাচ্চু বালুর বস্তা ফেলে কাজের শুরু করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন মৌলভীবাজার পানি উন্নয়ন বোর্ডের  উপ-সহকারী প্রকৌশলী মোঃ সরোয়ার আলম চৌধুরী, ইউপি সদস্য মোঃ ফরিদ আলী, গোলজার আহমদ, কটারকোনা বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি হাজী মোঃ সেলিম আহমদ প্রমুখ।

উলেখ্য গত কাল ঘটনাস্থল পরির্দশন করেন মৌলভীবাজার পানি উন্নয়ন বোর্ডের তত্বাবধায়ক ও প্রকৌশলী আব্দুস সহিদ, নির্বাহী প্রকৌশলী নরেন্দ্র সংকর চক্রবর্তী, উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী খোরশেদ আলম, উপ-সহকারী প্রকৌশলী মোঃ সরোয়ার আলম চৌধুরী।

আপাতদ বেড়ীবাঁধে পাশ্বে বল্লীগাড়ে ২০ হাজার বালুর বস্তা ৫০ ফুট বাঁধ ও নাদীর পাশ্বে দুটি পুকুর ভরাট করার হবে বলে স্থানীয় চেয়ারম্যান জানিয়েছেন।

 

পোস্ট শেয়ার করুন

কুলাউড়ার হাসিমপুরে ঝুকিপুর্ন মনুনদীর বেড়ীবাঁধ মেরামতের কাজ শুরু

আপডেটের সময় : ১১:২৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই ২০১৯

ছয়ফুল আলম সাইফুলঃ মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলার হাজীপুর ইউনিয়নের মনু-কটাকোনার হাসিমপুর নামক স্থানে মনু-নদীর বেড়ীবাঁধ আংশিক ঝুকিপুর্ণ স্থান মেরামতের কাজ শুরু করা হয়েছে।

আজ ১১ জুলাই বৃহস্পতিবার বিকালে হাজীপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল বাছিত বাচ্চু বালুর বস্তা ফেলে কাজের শুরু করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন মৌলভীবাজার পানি উন্নয়ন বোর্ডের  উপ-সহকারী প্রকৌশলী মোঃ সরোয়ার আলম চৌধুরী, ইউপি সদস্য মোঃ ফরিদ আলী, গোলজার আহমদ, কটারকোনা বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি হাজী মোঃ সেলিম আহমদ প্রমুখ।

উলেখ্য গত কাল ঘটনাস্থল পরির্দশন করেন মৌলভীবাজার পানি উন্নয়ন বোর্ডের তত্বাবধায়ক ও প্রকৌশলী আব্দুস সহিদ, নির্বাহী প্রকৌশলী নরেন্দ্র সংকর চক্রবর্তী, উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী খোরশেদ আলম, উপ-সহকারী প্রকৌশলী মোঃ সরোয়ার আলম চৌধুরী।

আপাতদ বেড়ীবাঁধে পাশ্বে বল্লীগাড়ে ২০ হাজার বালুর বস্তা ৫০ ফুট বাঁধ ও নাদীর পাশ্বে দুটি পুকুর ভরাট করার হবে বলে স্থানীয় চেয়ারম্যান জানিয়েছেন।