ঢাকা , বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
উচ্ছ্বাস আর আনন্দে বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখের উদযাপন করেছে পর্তুগাল যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা রিডানডেন্ট ক্লোথিং আর মজুর মামার ‘বিশ্বকাপ’ ইউরোপের সবচেয়ে বড় ঈদুল ফিতরের নামাজ পর্তুগালে অনুষ্ঠিত হয় বর্ণাঢ্য আয়োজনে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের ইফতার ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন ঈদের কাপড় কিনার জন্য মা’য়ের উপর অভিমান করে মেয়ের আত্মহত্যা লিসবনে বন্ধু মহলের আয়োজনে বিশাল ইফতার ও দোয়া মাহফিল মান অভিমান ভুলে সবাই একই প্লাটফর্মে,সংবাদ সম্মেলনে পর্তুগাল বিএনপির নবগঠিত আহবায়ক কমিটি

কুলাউড়ার বিভিন্ন এলাকায় স্মরণকালের ভারী বর্ষণ

ছয়ফুল আলম সাইফুলঃ
  • আপডেটের সময় : ০৩:০৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০১৯
  • / ৪৭৫ টাইম ভিউ

ছয়ফুল আলম সাইফুলঃ কুলাউড়া উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় স্মরণকালের ভারী বর্ষণ হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত ১২ টার পর থেকে সকাল ৯ টা পর্যন্ত এই এলাকায় প্রায় ২০০ মি লি বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ।
এদিকে প্রবল বর্ষণের কারণে বিদ্যুৎ গতিতে বাড়ছে মনু নদের পানি। আজ শুক্রবার সকাল থেকে এ পর্যন্ত (১২.০৬) নদীতে প্রায় ১০ ফুট পানি বেড়েছে।
এলাকাবাসীর ধারনা বিকেলের পরই নদীর পানি বিপদজনক রুপ নিতে পারে।
এদিকে হাজীপুর ইউনিয়নের মাদানগর থেকে নোয়াগাও পর্যন্ত এবং শরীফপুর ইউনিয়নের  চাতলাপুর চেকপোস্ট হইতে নিশ্চিন্তপুর পর্যন্ত নদী তীরবর্তী এলাকার মানুষের মাঝে বন্যা ও নদী ভাঙনের আতংক দেখা দিয়েছে।
উল্লেখ্য গত বছরের ২৭ রমজান হাজীপুর, শরিফপুর, টিলাগাও ইউনিয়নে সৃষ্ট ভয়াবহ বন্যায় ব্যাপক ক্ষতি হয়েছিলো যা এখনও কাটিয়ে উঠতে পারেনি এলাকাবাসী।
হাজীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল বাছিত বাচ্চু জানান কাউকাপন বাজার এলাকায়  বাজারের অর্ধেক গত বছরের বন্যায় বিলীন হয়ে গেছে । এখন কোনিমোরা থেকে দেওয়ানদিঘী রাস্তাসহ পুরো বাজার বিলীন হওয়ার আশংকা।
পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী আজ মুঠোফোনে জানান, কাউকাপন বাজার রক্ষার একটি প্রকল্প মন্ত্রণালয়ে অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে।

পোস্ট শেয়ার করুন

কুলাউড়ার বিভিন্ন এলাকায় স্মরণকালের ভারী বর্ষণ

আপডেটের সময় : ০৩:০৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০১৯

ছয়ফুল আলম সাইফুলঃ কুলাউড়া উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় স্মরণকালের ভারী বর্ষণ হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত ১২ টার পর থেকে সকাল ৯ টা পর্যন্ত এই এলাকায় প্রায় ২০০ মি লি বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ।
এদিকে প্রবল বর্ষণের কারণে বিদ্যুৎ গতিতে বাড়ছে মনু নদের পানি। আজ শুক্রবার সকাল থেকে এ পর্যন্ত (১২.০৬) নদীতে প্রায় ১০ ফুট পানি বেড়েছে।
এলাকাবাসীর ধারনা বিকেলের পরই নদীর পানি বিপদজনক রুপ নিতে পারে।
এদিকে হাজীপুর ইউনিয়নের মাদানগর থেকে নোয়াগাও পর্যন্ত এবং শরীফপুর ইউনিয়নের  চাতলাপুর চেকপোস্ট হইতে নিশ্চিন্তপুর পর্যন্ত নদী তীরবর্তী এলাকার মানুষের মাঝে বন্যা ও নদী ভাঙনের আতংক দেখা দিয়েছে।
উল্লেখ্য গত বছরের ২৭ রমজান হাজীপুর, শরিফপুর, টিলাগাও ইউনিয়নে সৃষ্ট ভয়াবহ বন্যায় ব্যাপক ক্ষতি হয়েছিলো যা এখনও কাটিয়ে উঠতে পারেনি এলাকাবাসী।
হাজীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল বাছিত বাচ্চু জানান কাউকাপন বাজার এলাকায়  বাজারের অর্ধেক গত বছরের বন্যায় বিলীন হয়ে গেছে । এখন কোনিমোরা থেকে দেওয়ানদিঘী রাস্তাসহ পুরো বাজার বিলীন হওয়ার আশংকা।
পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী আজ মুঠোফোনে জানান, কাউকাপন বাজার রক্ষার একটি প্রকল্প মন্ত্রণালয়ে অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে।