ঢাকা , শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কাবুল বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৮০

অনলাইন ডেস্ক :
  • আপডেটের সময় : ০৩:২২ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩১ মে ২০১৭
  • / ১২০৪ টাইম ভিউ

কাবুল,৩১ মে -আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে গাড়ি বোমা বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৮০ জনে দাঁড়িয়েছে। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও অন্তত ৩শ’ মানুষ। বুধবার সকালে শহরের কেন্দ্রস্থল জানবাক স্কয়ারের কাছে শক্তিশালী বোমার বিস্ফোরণটি ঘটে। ঘটনাস্থলের কাছেই বিভিন্ন দেশের দূতাবাস এবং প্রেসিডেন্ট প্রাসাদ অবস্থিত। এদিকে, আহতদের স্থানীয় হাসপাতালগুলোতে ভর্তি করা হয়েছে। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ওয়াহিদ মাজরুহ জানিয়েছেন, আহতদের অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিস্ফোরণটি এতটাই ভয়ানক ছিল যে আশপাশের স্থাপনাও ক্ষতিগ্রস্থ হয়। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশিত ছবি ও ভিডিওতে শহরের ওই স্থানে কালো ধোঁয়া দেখা যায়। রাস্তায় পড়ে থাকা গাড়িগুলোও হয়েছে সম্পূর্ণ বিধ্বস্ত। বিস্ফোরণটি এমন ব্যস্ত সময়ে ঘটে যখন সবাই কর্মস্থলে যাচ্ছিলেন।  কাবুল পুলিশের মুখপাত্র বশির মুজাহিদ জানান, জার্মান দূতাবাসের খুব কাছে বিস্ফোরিত বোমাটি গাড়িতে ছিল বলে তাদের ধারণা। তবে কাদের লক্ষ্য করে হামলাটি চালানো হয়েছে তা স্পষ্ট নয়। অন্যদিকে দূতাবাস অঞ্চলের কাছে বিস্ফোরণের ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্র, ভারতসহ বিভিন্ন দেশ উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। অবশ্য হামলার দায় এখনও কেউ স্বীকার করেনি। তবে ঘটনার সঙ্গে আইএস অথবা তালেবান জঙ্গিগোষ্ঠী জড়িত থাকতে পারে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। চলতি মাসের গোড়ার দিকে ন্যাটো বাহিনীর সামরিক বহরে আইএস জঙ্গিরা আত্মঘাতী হামলা চালালে ৮ জন নিহত হন। এছাড়া এপ্রিলে তালেবান জঙ্গিরা দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় শহর মাজার-ই-শরীফ’এর সেনা প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে হামলা চালালে অন্তত ১৩৫ সেনা নিহত হন।

পোস্ট শেয়ার করুন

কাবুল বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৮০

আপডেটের সময় : ০৩:২২ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩১ মে ২০১৭

কাবুল,৩১ মে -আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে গাড়ি বোমা বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৮০ জনে দাঁড়িয়েছে। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও অন্তত ৩শ’ মানুষ। বুধবার সকালে শহরের কেন্দ্রস্থল জানবাক স্কয়ারের কাছে শক্তিশালী বোমার বিস্ফোরণটি ঘটে। ঘটনাস্থলের কাছেই বিভিন্ন দেশের দূতাবাস এবং প্রেসিডেন্ট প্রাসাদ অবস্থিত। এদিকে, আহতদের স্থানীয় হাসপাতালগুলোতে ভর্তি করা হয়েছে। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ওয়াহিদ মাজরুহ জানিয়েছেন, আহতদের অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিস্ফোরণটি এতটাই ভয়ানক ছিল যে আশপাশের স্থাপনাও ক্ষতিগ্রস্থ হয়। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশিত ছবি ও ভিডিওতে শহরের ওই স্থানে কালো ধোঁয়া দেখা যায়। রাস্তায় পড়ে থাকা গাড়িগুলোও হয়েছে সম্পূর্ণ বিধ্বস্ত। বিস্ফোরণটি এমন ব্যস্ত সময়ে ঘটে যখন সবাই কর্মস্থলে যাচ্ছিলেন।  কাবুল পুলিশের মুখপাত্র বশির মুজাহিদ জানান, জার্মান দূতাবাসের খুব কাছে বিস্ফোরিত বোমাটি গাড়িতে ছিল বলে তাদের ধারণা। তবে কাদের লক্ষ্য করে হামলাটি চালানো হয়েছে তা স্পষ্ট নয়। অন্যদিকে দূতাবাস অঞ্চলের কাছে বিস্ফোরণের ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্র, ভারতসহ বিভিন্ন দেশ উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। অবশ্য হামলার দায় এখনও কেউ স্বীকার করেনি। তবে ঘটনার সঙ্গে আইএস অথবা তালেবান জঙ্গিগোষ্ঠী জড়িত থাকতে পারে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। চলতি মাসের গোড়ার দিকে ন্যাটো বাহিনীর সামরিক বহরে আইএস জঙ্গিরা আত্মঘাতী হামলা চালালে ৮ জন নিহত হন। এছাড়া এপ্রিলে তালেবান জঙ্গিরা দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় শহর মাজার-ই-শরীফ’এর সেনা প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে হামলা চালালে অন্তত ১৩৫ সেনা নিহত হন।