ঢাকা , শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর মুটো ফোনের আসক্তি দূর করবেন যেভাবে… এই অভ্যাসগুলোর চর্চা নিয়মিত করা উচিৎ স্বামী-স্ত্রীর বয়সের পার্থক্য থাকা জরুরি কেনো ? পুনাক এর উদ্যোগে দুস্হ ও অসহায় নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরন করা হয়েছে কুলাউড়ার টিলাগাঁও এ সরকারি গাছ বিক্রি করলেন প্রধান শিক্ষক লটারি বাইক জিতলো মা’ সে কারণে কপাল পুড়লো মেয়ের ফজরের নামাজে যাওয়ার সময় রাস্তায় কুকুর দলের আক্রমনে প্রান গেলো ইজাজুলের সাবেক সাংসদ সেলিমা আহমাদ মেরীর সাথে পর্তুগাল আওয়ামিলীগের মতবিনিময় সভা

কানাডা বাংলাদেশ কালচারাল অরগানাইজেশন ও ভাসানী স্মৃতি পরিষদ এবং ওসমানী স্মৃতি পরিষদের সম্মিলিত উদ্যোগে মহান বিজয় পালিত

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেটের সময় : ১২:৩৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯
  • / ৪৯১ টাইম ভিউ

নিজস্ব প্রতিনিধি : কানাডা বাংলাদেশ কালচারাল অরগানাইজেশন ও ভাসানী স্মৃতি পরিষদ এবং ওসমানী স্মৃতি পরিষদের সম্মিলিত উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হয়, মহান বিজয় দিবস “উৎসব”। সারাদিন ব্যাপী ছিল কানাডা-আমেরিকান ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড়দের মধ্যে চ্যাম্পিয়নশিপ লড়াই
সন্ধ্যায় ছিল বিজয় দিবসের তাৎপর্য ও আলোচনা সভা। তারপর রয়েছে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান সহ এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা। বিপুল সংখ্যক মানুষের উপস্থিতিতে বিজয় উৎসব পালন।
আমাদের জাতীয় জীবনে ভাষা আন্দোলন ও মহান মুক্তিযােদ্ধের ভূমিকা অপরিসীম মওলানা ভাসানী এবং মুক্তিযােদ্ধের সর্বাধিনায়ক ছিলেন , সেই জেনারেল ( অব: ) এম . এ . জি ওসমানী আমাদের জাতীয় বীর ও সর্বজন বিদিত শ্রদ্ধার পাত্র । তাদের অবদান ও জীবনী ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছে পৌঁছে দেয়ার মানসে টরন্টোতে ভাসানী স্মৃতি পরিষদ ওজেনারেল ( অব: ) ওসমানী স্মৃতি পরিষদ , কানাডার। আগামী প্রজন্মকে দেশপ্রেম ও গণতন্ত্র চর্চার দৃষ্টান্তগুলাে পৌঁছে দেয়া ও স্বদেপ্রেমে উদ্বুদ্ধ করাই এই পরিষদের প্রধান উদ্দেশ্য । রাজনীতি এবং সমরনীতিতে তিনি মেধা , শ্রম , দক্ষতা , সততা শৃঙ্খলা , দেশপ্রেম এবং আদর্শবাদের প্রতীক । যতদিন বাংলাদেশের ভূমিতে লাল সূর্যের পতাকা উড়বে ততদিন সর্বাধিনায়ক ওসমানী এবং ভাসানী বাংলাদেশের মানুষের হৃদয়ে চিরভাস্বর হয়ে থাকবেন । একটি জাতির সাহসের নাম । জাতীয় ঐক্য ও ভ্রাতৃত্বের নাম ।
সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সহ বিপুল সংখ্যক লোকজনের উপস্হিতিতে
জনাব আখলাক হোসেনের সভাপত্বিতে এবং জাকারিয়া রশীদ চৌধুরী পরিচালনায়
প্রধান অতিথি ছিলেন সাবেক ভি সি জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ব বিদ্যালয় জনাব ডঃজসিম উদদীন, বক্তব্য রাখেন জনাব মাহবুবর রব চৌধুরী, রেশাদ চৌধুরী, আহাদ খন্দকার, সাদ চৌধুরী, নুরুল ইসলাম, মিজান চৌধুরী,মঈন চৌধুরী, ডাঃ সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, বেলায়েত হোসেন চৌধুরী,তাহমিনা আক্তার চৌধুরী, আফিয়া বেগম, রাফি চৌধুরী, আজিজ আহমদ,জকির খান, এজাজ খান,এ কে এম জহির,রিপন বক্ত, আহমদ হোসেন লনি,মকবুল হোসেন মনজু,ময়নুল ইসলাম, এবাদ চৌধুরী,কুহিনুর ইসলাম তানবির, আতিক মিয়া,আসাদ আহাদ নিশু,সৈয়দ তপন মাহমুদ, আমিনুল রশীদ চৌধুরী, ইমন চৌধুরী,আব্দুল মালিক, জামাল মিয়া,শাকিল খান,কামরুল হাসান সাহান,আবু জহির মুহম্মদ সাকিব, খালেদ আহমদ, সালাউদিদন আহমদ, নজরুল ইসলাম, মাহবুব ইসলাম,
তারপর রয়েছে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন মিলাদ চৌধুরী। বিজয়ী হাতে পুরস্কার এবং আমাদের কমিনিটির নেতৃবৃন্দ।
মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা টা পরিচালনা করেন ফারহানা আহমদ এবং আছমা হকও অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করবেন কিংবদন্তি বাউল শিল্পী সাবু শাহ ও মুক্তা ছারওয়ার রিদি,ফারহান জয়,মৌসুমি, সহ স্থানীয় আরোও অনেক শিল্পী বৃন্দ।
সর্বশেষে রয়েছে বিজয় দিবস উৎসবের প্রধান আকর্ষণ,ইন্ডিয়ান রাধুনী জগতের স্বনামধন্য chief প্রিয় হুসাইন আহমেদ (লনি) এবং মইনুল হোসেন ভাই’ মনসুর আহমদের সহযোগিতায় মজাদার খাশীর সাথে সিলেটের সাতকরা।

পোস্ট শেয়ার করুন

কানাডা বাংলাদেশ কালচারাল অরগানাইজেশন ও ভাসানী স্মৃতি পরিষদ এবং ওসমানী স্মৃতি পরিষদের সম্মিলিত উদ্যোগে মহান বিজয় পালিত

আপডেটের সময় : ১২:৩৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯

নিজস্ব প্রতিনিধি : কানাডা বাংলাদেশ কালচারাল অরগানাইজেশন ও ভাসানী স্মৃতি পরিষদ এবং ওসমানী স্মৃতি পরিষদের সম্মিলিত উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হয়, মহান বিজয় দিবস “উৎসব”। সারাদিন ব্যাপী ছিল কানাডা-আমেরিকান ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড়দের মধ্যে চ্যাম্পিয়নশিপ লড়াই
সন্ধ্যায় ছিল বিজয় দিবসের তাৎপর্য ও আলোচনা সভা। তারপর রয়েছে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান সহ এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা। বিপুল সংখ্যক মানুষের উপস্থিতিতে বিজয় উৎসব পালন।
আমাদের জাতীয় জীবনে ভাষা আন্দোলন ও মহান মুক্তিযােদ্ধের ভূমিকা অপরিসীম মওলানা ভাসানী এবং মুক্তিযােদ্ধের সর্বাধিনায়ক ছিলেন , সেই জেনারেল ( অব: ) এম . এ . জি ওসমানী আমাদের জাতীয় বীর ও সর্বজন বিদিত শ্রদ্ধার পাত্র । তাদের অবদান ও জীবনী ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছে পৌঁছে দেয়ার মানসে টরন্টোতে ভাসানী স্মৃতি পরিষদ ওজেনারেল ( অব: ) ওসমানী স্মৃতি পরিষদ , কানাডার। আগামী প্রজন্মকে দেশপ্রেম ও গণতন্ত্র চর্চার দৃষ্টান্তগুলাে পৌঁছে দেয়া ও স্বদেপ্রেমে উদ্বুদ্ধ করাই এই পরিষদের প্রধান উদ্দেশ্য । রাজনীতি এবং সমরনীতিতে তিনি মেধা , শ্রম , দক্ষতা , সততা শৃঙ্খলা , দেশপ্রেম এবং আদর্শবাদের প্রতীক । যতদিন বাংলাদেশের ভূমিতে লাল সূর্যের পতাকা উড়বে ততদিন সর্বাধিনায়ক ওসমানী এবং ভাসানী বাংলাদেশের মানুষের হৃদয়ে চিরভাস্বর হয়ে থাকবেন । একটি জাতির সাহসের নাম । জাতীয় ঐক্য ও ভ্রাতৃত্বের নাম ।
সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সহ বিপুল সংখ্যক লোকজনের উপস্হিতিতে
জনাব আখলাক হোসেনের সভাপত্বিতে এবং জাকারিয়া রশীদ চৌধুরী পরিচালনায়
প্রধান অতিথি ছিলেন সাবেক ভি সি জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ব বিদ্যালয় জনাব ডঃজসিম উদদীন, বক্তব্য রাখেন জনাব মাহবুবর রব চৌধুরী, রেশাদ চৌধুরী, আহাদ খন্দকার, সাদ চৌধুরী, নুরুল ইসলাম, মিজান চৌধুরী,মঈন চৌধুরী, ডাঃ সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, বেলায়েত হোসেন চৌধুরী,তাহমিনা আক্তার চৌধুরী, আফিয়া বেগম, রাফি চৌধুরী, আজিজ আহমদ,জকির খান, এজাজ খান,এ কে এম জহির,রিপন বক্ত, আহমদ হোসেন লনি,মকবুল হোসেন মনজু,ময়নুল ইসলাম, এবাদ চৌধুরী,কুহিনুর ইসলাম তানবির, আতিক মিয়া,আসাদ আহাদ নিশু,সৈয়দ তপন মাহমুদ, আমিনুল রশীদ চৌধুরী, ইমন চৌধুরী,আব্দুল মালিক, জামাল মিয়া,শাকিল খান,কামরুল হাসান সাহান,আবু জহির মুহম্মদ সাকিব, খালেদ আহমদ, সালাউদিদন আহমদ, নজরুল ইসলাম, মাহবুব ইসলাম,
তারপর রয়েছে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন মিলাদ চৌধুরী। বিজয়ী হাতে পুরস্কার এবং আমাদের কমিনিটির নেতৃবৃন্দ।
মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা টা পরিচালনা করেন ফারহানা আহমদ এবং আছমা হকও অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করবেন কিংবদন্তি বাউল শিল্পী সাবু শাহ ও মুক্তা ছারওয়ার রিদি,ফারহান জয়,মৌসুমি, সহ স্থানীয় আরোও অনেক শিল্পী বৃন্দ।
সর্বশেষে রয়েছে বিজয় দিবস উৎসবের প্রধান আকর্ষণ,ইন্ডিয়ান রাধুনী জগতের স্বনামধন্য chief প্রিয় হুসাইন আহমেদ (লনি) এবং মইনুল হোসেন ভাই’ মনসুর আহমদের সহযোগিতায় মজাদার খাশীর সাথে সিলেটের সাতকরা।