ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
বাংলাদেশে কোটা আন্দোলনে হত্যার প্রতিবাদে পর্তুগালে বিক্ষোভ করেছে বাংলাদেশী প্রবাসীরা প্রিয়জনদের মানসিক রোগ যদি আপনজন বুঝতে না পারেন আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা ও অভিষেক অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা করেছে পর্তুগাল আওয়ামীলীগ যেকোনো প্রচেষ্টা এককভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব নয়: দুদক সচিব শ্রীমঙ্গলে দুটি চোরাই মোটরসাইকেল সহ মিল্টন কুমার আটক পর্তুগালের অভিবাসন আইনে ব্যাপক পরিবর্তন পর্তুগাল বিএনপি আহবায়ক কমিটির জুমে জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয় এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর

কানাডায় হিজাব নিষিদ্ধ: চাকরি হারাচ্ছেন মালালা

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ
  • আপডেটের সময় : ০১:২৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ৭ জুলাই ২০১৯
  • / ৪৪৫ টাইম ভিউ

শান্তিতে নোবেলজয়ী পাকিস্তানি নাগরিক মালালা ইউসুজাই হিজাবের জন্য তার চাকরি হারাতে যাচ্ছেন। মালালা কানাডার কুইবেকে শিক্ষকতা করছেন। কিন্তু সম্প্রতি কুইবেকের শিক্ষাদপ্তর জানিয়েছে, কর্মজীবিরা ধর্মীয় চিহ্নযুক্ত কোনও কিছু পরে কর্মক্ষেত্রে আসতে পারবে না। তবে মালালা হিজাব ছাড়লে কর্মক্ষেত্রে যোগ দিতে পারবেন বলে জানানো হয়েছে।

এই আইনের আওতায় শিক্ষক ছাড়াও পুলিশ অফিসার ও আইনজীবীদের রাখা হয়েছে।

ইসলাম ধর্মের অন্যতম চিহ্ন ‘হিজাব’ পরেন মালালা। সেভাবেই তিনি কানাডার প্রদেশ কুইবেকে পড়াতেন। ফলে নতুন আইন অনুযায়ী, কুইবেকে তার পড়ানো নিষিদ্ধ।

ধর্মনিরপেক্ষতা বজায় রাখার জন্যই এই আইনটি পাশ করানো হয়েছে বলে জানান কুইবেকের শিক্ষামন্ত্রী জঁ ফ্রাঁসোয়া রবার্জো।

তিনি জানান, কুইবেকে মালালা পড়ালে আমরা সম্মানিত হব। কিন্তু যে কোনও উদার, সহিষ্ণু দেশে শিক্ষকরা কোনও ধর্মচিহ্ন সঙ্গে নিয়ে কাজ করবেন, এরকম কোনও উদাহরণ নেই।

আইনটি পাশ হওয়ার পর ফ্রান্স সফরে মালালার সঙ্গে দেখা করেন কুইবেকের ওই শিক্ষামন্ত্রী। পরে তাদের একটি ছবি ভাইরাল হলে শিক্ষামন্ত্রীর সমালোচনা করা হয়।

পোস্ট শেয়ার করুন

কানাডায় হিজাব নিষিদ্ধ: চাকরি হারাচ্ছেন মালালা

আপডেটের সময় : ০১:২৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ৭ জুলাই ২০১৯

শান্তিতে নোবেলজয়ী পাকিস্তানি নাগরিক মালালা ইউসুজাই হিজাবের জন্য তার চাকরি হারাতে যাচ্ছেন। মালালা কানাডার কুইবেকে শিক্ষকতা করছেন। কিন্তু সম্প্রতি কুইবেকের শিক্ষাদপ্তর জানিয়েছে, কর্মজীবিরা ধর্মীয় চিহ্নযুক্ত কোনও কিছু পরে কর্মক্ষেত্রে আসতে পারবে না। তবে মালালা হিজাব ছাড়লে কর্মক্ষেত্রে যোগ দিতে পারবেন বলে জানানো হয়েছে।

এই আইনের আওতায় শিক্ষক ছাড়াও পুলিশ অফিসার ও আইনজীবীদের রাখা হয়েছে।

ইসলাম ধর্মের অন্যতম চিহ্ন ‘হিজাব’ পরেন মালালা। সেভাবেই তিনি কানাডার প্রদেশ কুইবেকে পড়াতেন। ফলে নতুন আইন অনুযায়ী, কুইবেকে তার পড়ানো নিষিদ্ধ।

ধর্মনিরপেক্ষতা বজায় রাখার জন্যই এই আইনটি পাশ করানো হয়েছে বলে জানান কুইবেকের শিক্ষামন্ত্রী জঁ ফ্রাঁসোয়া রবার্জো।

তিনি জানান, কুইবেকে মালালা পড়ালে আমরা সম্মানিত হব। কিন্তু যে কোনও উদার, সহিষ্ণু দেশে শিক্ষকরা কোনও ধর্মচিহ্ন সঙ্গে নিয়ে কাজ করবেন, এরকম কোনও উদাহরণ নেই।

আইনটি পাশ হওয়ার পর ফ্রান্স সফরে মালালার সঙ্গে দেখা করেন কুইবেকের ওই শিক্ষামন্ত্রী। পরে তাদের একটি ছবি ভাইরাল হলে শিক্ষামন্ত্রীর সমালোচনা করা হয়।