ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
বাংলাদেশে কোটা আন্দোলনে হত্যার প্রতিবাদে পর্তুগালে বিক্ষোভ করেছে বাংলাদেশী প্রবাসীরা প্রিয়জনদের মানসিক রোগ যদি আপনজন বুঝতে না পারেন আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা ও অভিষেক অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা করেছে পর্তুগাল আওয়ামীলীগ যেকোনো প্রচেষ্টা এককভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব নয়: দুদক সচিব শ্রীমঙ্গলে দুটি চোরাই মোটরসাইকেল সহ মিল্টন কুমার আটক পর্তুগালের অভিবাসন আইনে ব্যাপক পরিবর্তন পর্তুগাল বিএনপি আহবায়ক কমিটির জুমে জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয় এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর

কানাডায় চলছে ১৩তম টরন্টো বাংলা বইমেলা

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ
  • আপডেটের সময় : ১২:১৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ৭ জুলাই ২০১৯
  • / ৪৮৫ টাইম ভিউ

আলোকে আঁধার হোক চুর্ণ’ এই শ্লোগানে শুরু হয়েছে কানাডায় ‘১৩তম টরন্টো বাংলা বইমেলা ২০১৯’। শনিবার ৬ জুলাই এর উদ্বোধন করেছেন বাংলা একাডেমি মহাপরিচালক কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজী।

এসময় বিশেষ অতিথি ছিলেন কবি আসাদ চৌধুরী। এছাড়া আরো ছিলেন অনন্যা প্রকাশের মনিরুল হক, অন্বয় প্রকাশের স্বত্বাধিকারী শিশু সাহিত্যিক হুমায়ুন কবির ঢালী, সন্দেশ প্রকাশ’র লুৎফুর রহমান, নিউইয়র্কের কবি আব্দুল্লাহ আল হাসান, শেলী জামান, ওয়াশিংটন ডিসির লেখক-সাংবাদিক শিব্বীর আহমেদ। লেখক জসিম মল্লিকের সঞ্চালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন শান্তা রহমান এবং মনোমুগ্ধকর নৃত্য পরিবেশন করে শুকণ্যা নৃত্যাঙ্গনের শিল্পীরা।
বইমেলায় ষ্টল নিয়ে অংশগ্রহণ করেছে অনন্যা প্রকাশ, অন্বয় প্রকাশ, প্রথম আলো উত্তর আমেরিকা, কথা প্রকাশ, সন্দেশ প্রকাশ সহ কানাডার কয়েকটি প্রকাশনী সংস্থা। ১৩তম টরন্টো বাংলা বইমেলার উদ্বোদনের পূর্বে টরন্টোর ডানফোর্থ রোডের উপর শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়।

উদ্বোধনী বক্তব্যে বাংলা একাডেমি মহাপরিচালক কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজী বলেন, বাংলা ভাষা পৃথিবীর ষষ্ঠতম ভাষা। এই ভাষাকে সারা পৃথিবীতে ছড়িয়ে দিতে বইমেলা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। এই বইমেলার মধ্যে দিয়ে আমাদের নতুন প্রজন্ম ‘জয় বাংলা’ শ্লোগানে সারাবিশ্বে মাথা তুলে দাঁড়াবে।

উল্লেখ্য, দুইদিনব্যাপী এ বইমেলা শেষ হচ্ছে ৭ জুলাই।

পোস্ট শেয়ার করুন

কানাডায় চলছে ১৩তম টরন্টো বাংলা বইমেলা

আপডেটের সময় : ১২:১৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ৭ জুলাই ২০১৯

আলোকে আঁধার হোক চুর্ণ’ এই শ্লোগানে শুরু হয়েছে কানাডায় ‘১৩তম টরন্টো বাংলা বইমেলা ২০১৯’। শনিবার ৬ জুলাই এর উদ্বোধন করেছেন বাংলা একাডেমি মহাপরিচালক কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজী।

এসময় বিশেষ অতিথি ছিলেন কবি আসাদ চৌধুরী। এছাড়া আরো ছিলেন অনন্যা প্রকাশের মনিরুল হক, অন্বয় প্রকাশের স্বত্বাধিকারী শিশু সাহিত্যিক হুমায়ুন কবির ঢালী, সন্দেশ প্রকাশ’র লুৎফুর রহমান, নিউইয়র্কের কবি আব্দুল্লাহ আল হাসান, শেলী জামান, ওয়াশিংটন ডিসির লেখক-সাংবাদিক শিব্বীর আহমেদ। লেখক জসিম মল্লিকের সঞ্চালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন শান্তা রহমান এবং মনোমুগ্ধকর নৃত্য পরিবেশন করে শুকণ্যা নৃত্যাঙ্গনের শিল্পীরা।
বইমেলায় ষ্টল নিয়ে অংশগ্রহণ করেছে অনন্যা প্রকাশ, অন্বয় প্রকাশ, প্রথম আলো উত্তর আমেরিকা, কথা প্রকাশ, সন্দেশ প্রকাশ সহ কানাডার কয়েকটি প্রকাশনী সংস্থা। ১৩তম টরন্টো বাংলা বইমেলার উদ্বোদনের পূর্বে টরন্টোর ডানফোর্থ রোডের উপর শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়।

উদ্বোধনী বক্তব্যে বাংলা একাডেমি মহাপরিচালক কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজী বলেন, বাংলা ভাষা পৃথিবীর ষষ্ঠতম ভাষা। এই ভাষাকে সারা পৃথিবীতে ছড়িয়ে দিতে বইমেলা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। এই বইমেলার মধ্যে দিয়ে আমাদের নতুন প্রজন্ম ‘জয় বাংলা’ শ্লোগানে সারাবিশ্বে মাথা তুলে দাঁড়াবে।

উল্লেখ্য, দুইদিনব্যাপী এ বইমেলা শেষ হচ্ছে ৭ জুলাই।