ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর মুটো ফোনের আসক্তি দূর করবেন যেভাবে… এই অভ্যাসগুলোর চর্চা নিয়মিত করা উচিৎ স্বামী-স্ত্রীর বয়সের পার্থক্য থাকা জরুরি কেনো ? পুনাক এর উদ্যোগে দুস্হ ও অসহায় নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরন করা হয়েছে কুলাউড়ার টিলাগাঁও এ সরকারি গাছ বিক্রি করলেন প্রধান শিক্ষক লটারি বাইক জিতলো মা’ সে কারণে কপাল পুড়লো মেয়ের ফজরের নামাজে যাওয়ার সময় রাস্তায় কুকুর দলের আক্রমনে প্রান গেলো ইজাজুলের সাবেক সাংসদ সেলিমা আহমাদ মেরীর সাথে পর্তুগাল আওয়ামিলীগের মতবিনিময় সভা

করোনায় নেগেটিভ এমপিরাই যোগ দিচ্ছেন বাজেট অধিবেশন

দেশ দিগন্ত ডেক্স:
  • আপডেটের সময় : ০৩:৪০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুন ২০২০
  • / ৫৩৮ টাইম ভিউ

জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশন ৭ দিন বিরতির পর আজ মঙ্গলবার আবার বসছে। তবে চলমান এই অধিবেশনে থাকছেন না সব এমপি। জানা গেছে, শুধুমাত্র করোনা নেগেটিভ রিপোর্ট পাওয়া এমপিরাই এতে যোগ দিতে পারবেন।

সংসদ সচিবালয় সূত্র জানায়, করোনাভাইরাসের কারণে সংসদ অধিবেশনে প্রবেশে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। প্রবেশের আগে এবার মন্ত্রী-এমপিদের করোনা আছে কিনা সেই নমুনা পরীক্ষা করা হবে। বিশেষ করে প্রবেশাধিকার পেতে সব এমপিদের লাগবে করোনার নেগেটিভ রিপোর্ট। এরইমধ্যে মন্ত্রী-এমপিদের অনেকে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এজন্য সংসদে প্রবেশে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ মারা যাওয়ার পর মন্ত্রী-এমপিদের স্বাস্থ্যঝুঁকি নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ে সংসদ সচিবালয়। চলমান বাজেট অধিবেশনে যোগদান করা বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি এবং গণফোরামের এমপি মোকাব্বির খানের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ফলাফল পজেটিভ আসায় এই উদ্বেগ তৈরি হয় মৃত্যুশঙ্কায়। যে কারণে জাতীয় সংসদ ভবনকে সুরক্ষিত রাখা এবং প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনাসহ অধিবেশনে যোগ দিতে যাওয়া সবার স্বাস্থ্য সুরক্ষায় মন্ত্রী-এমপিদের সংসদে উন্মুক্ত প্রবেশাধিকার সীমিত করে দেয়া হয়। একইসঙ্গে বাজেট সংক্রান্ত আগামী চারটি বৈঠকে অংশগ্রহণ করার কথা রয়েছে এমন ১৭০ জন এমপির করোনা পরীক্ষা বাধ্যতামূলক করে দেয়া হয়।

সংসদ সচিবালয় জানায়, এরইমধ্যে মন্ত্রী-এমপিদের করোনা পরীক্ষা শুরু হয়েছে। গত শনিবার ২০ জন, রোববার ৪৫ জন ও সোমবার ২৬ জনের নমুনা নিয়েছে সংসদ মেডিকেল সেন্টার। বাকিদের পরীক্ষাও আজ কালের মধ্যে শেষ করা হবে বলে জানা গেছে। তবে মন্ত্রী-এমপিদের পরীক্ষায় আক্রান্তের সংখ্যা খুব বাড়বে বলে মনে করেন না সংসদের চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী।

তিনি জানান, শনিবারের পরীক্ষার ফলাফলে ২০ জনের কারোই পজিটিভ আসেনি। সবাই সুস্থ আছেন। তবুও বাজেট অধিবেশনের বাকি কার্যদিবসগুলোতে যেসব এমপি অংশ নেবেন, তাদের করোনা পরীক্ষা শুরু হয়েছে।

অধিবেশন আরো সীমিত হবে কি না এ প্রশ্নে চিফ হুইপ বলেন, পরিস্থিতির ওপর সব নির্ভর করছে। আমরা অধিবেশনের যোগদানকারী সবাইকেই টেস্টের আওতায় আনছি।

করোনার ঊর্ধমুখী সংক্রমণের মধ্যেই ১০ জুন বাজেট অধিবেশন শুরু হয়েছে। ১১ জুন আগামী অর্থবছরের বাজেট পেশ করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। অন্যান্য বছর বাজেটের ওপর আলোচনা মাসব্যাপী হলেও এবার বাজেট অধিবেশন ৮-৯ কার্যদিবসে সীমাবদ্ধ করা হয়েছে। এক্ষেত্রে প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর আলোচনার দিন ও ঘণ্টা কমছে। পরিবর্তিত পরিকল্পনা অনুযায়ী সাধারণ বাজেটের ওপর আলোচনা হবে তিন দিন ২৩, ২৪ ও ২৯ জুন। ৩০ জুন বাজেট পাসের পর জুলাই মাসে হয়তো একদিন সংসদে বৈঠক করে অধিবেশনের সমাপ্তি টানা হতে পারে।#

পোস্ট শেয়ার করুন

করোনায় নেগেটিভ এমপিরাই যোগ দিচ্ছেন বাজেট অধিবেশন

আপডেটের সময় : ০৩:৪০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুন ২০২০

জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশন ৭ দিন বিরতির পর আজ মঙ্গলবার আবার বসছে। তবে চলমান এই অধিবেশনে থাকছেন না সব এমপি। জানা গেছে, শুধুমাত্র করোনা নেগেটিভ রিপোর্ট পাওয়া এমপিরাই এতে যোগ দিতে পারবেন।

সংসদ সচিবালয় সূত্র জানায়, করোনাভাইরাসের কারণে সংসদ অধিবেশনে প্রবেশে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। প্রবেশের আগে এবার মন্ত্রী-এমপিদের করোনা আছে কিনা সেই নমুনা পরীক্ষা করা হবে। বিশেষ করে প্রবেশাধিকার পেতে সব এমপিদের লাগবে করোনার নেগেটিভ রিপোর্ট। এরইমধ্যে মন্ত্রী-এমপিদের অনেকে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এজন্য সংসদে প্রবেশে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ মারা যাওয়ার পর মন্ত্রী-এমপিদের স্বাস্থ্যঝুঁকি নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ে সংসদ সচিবালয়। চলমান বাজেট অধিবেশনে যোগদান করা বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি এবং গণফোরামের এমপি মোকাব্বির খানের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ফলাফল পজেটিভ আসায় এই উদ্বেগ তৈরি হয় মৃত্যুশঙ্কায়। যে কারণে জাতীয় সংসদ ভবনকে সুরক্ষিত রাখা এবং প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনাসহ অধিবেশনে যোগ দিতে যাওয়া সবার স্বাস্থ্য সুরক্ষায় মন্ত্রী-এমপিদের সংসদে উন্মুক্ত প্রবেশাধিকার সীমিত করে দেয়া হয়। একইসঙ্গে বাজেট সংক্রান্ত আগামী চারটি বৈঠকে অংশগ্রহণ করার কথা রয়েছে এমন ১৭০ জন এমপির করোনা পরীক্ষা বাধ্যতামূলক করে দেয়া হয়।

সংসদ সচিবালয় জানায়, এরইমধ্যে মন্ত্রী-এমপিদের করোনা পরীক্ষা শুরু হয়েছে। গত শনিবার ২০ জন, রোববার ৪৫ জন ও সোমবার ২৬ জনের নমুনা নিয়েছে সংসদ মেডিকেল সেন্টার। বাকিদের পরীক্ষাও আজ কালের মধ্যে শেষ করা হবে বলে জানা গেছে। তবে মন্ত্রী-এমপিদের পরীক্ষায় আক্রান্তের সংখ্যা খুব বাড়বে বলে মনে করেন না সংসদের চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী।

তিনি জানান, শনিবারের পরীক্ষার ফলাফলে ২০ জনের কারোই পজিটিভ আসেনি। সবাই সুস্থ আছেন। তবুও বাজেট অধিবেশনের বাকি কার্যদিবসগুলোতে যেসব এমপি অংশ নেবেন, তাদের করোনা পরীক্ষা শুরু হয়েছে।

অধিবেশন আরো সীমিত হবে কি না এ প্রশ্নে চিফ হুইপ বলেন, পরিস্থিতির ওপর সব নির্ভর করছে। আমরা অধিবেশনের যোগদানকারী সবাইকেই টেস্টের আওতায় আনছি।

করোনার ঊর্ধমুখী সংক্রমণের মধ্যেই ১০ জুন বাজেট অধিবেশন শুরু হয়েছে। ১১ জুন আগামী অর্থবছরের বাজেট পেশ করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। অন্যান্য বছর বাজেটের ওপর আলোচনা মাসব্যাপী হলেও এবার বাজেট অধিবেশন ৮-৯ কার্যদিবসে সীমাবদ্ধ করা হয়েছে। এক্ষেত্রে প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর আলোচনার দিন ও ঘণ্টা কমছে। পরিবর্তিত পরিকল্পনা অনুযায়ী সাধারণ বাজেটের ওপর আলোচনা হবে তিন দিন ২৩, ২৪ ও ২৯ জুন। ৩০ জুন বাজেট পাসের পর জুলাই মাসে হয়তো একদিন সংসদে বৈঠক করে অধিবেশনের সমাপ্তি টানা হতে পারে।#