ঢাকা , বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে পূর্ব লন্ডনে বড়লেখার সোয়েব আহমেদের সমর্থনে মতবিনিময় সভা ইতালির ভেনিসে গ্রিন সিলেট ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন এর জরুরি সভা অনুষ্ঠিত ইতালির ভেনিসে এনটিভির ইউরোপের ডিরেক্টর সাবরিনা হোসাইন কে সংবর্ধনা দিয়েছে ইউরোপিয়ান বাংলা প্রেসক্লাব পর্তুগালে বেজা আওয়ামীলীগের কর্মি সভা পর্তুগাল এ ফ্রেন্ডশিপ ক্রিকেট ক্লাবের জার্সি উন্মোচন লিসবনে আত্মপ্রকাশ হয় সামাজিক সংগঠন “গোলাপগঞ্জ কমিউনিটি কেয়ারর্স পর্তুগাল “ উচ্ছ্বাস আর আনন্দে বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখের উদযাপন করেছে পর্তুগাল যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা

কমলগঞ্জের রহিমপুরে প্রবাসীর স্ত্রী উধাও

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেটের সময় : ০৭:২৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ ডিসেম্বর ২০২১
  • / ৪৪৭ টাইম ভিউ

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি : কমলগঞ্জ উপজেলায় নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকারসহ নিখোঁজ প্রবাসীর স্ত্রী। উপজেলার রহিমপুর ইউনিয়নের রামচন্দ্রপুর গ্রামে ওই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় প্রবাসীর ভাই শহিদ মিয়া বাদী হয়ে শনিবার ২৫ ডিসেম্বর কমলগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।
উপজেলার রহিমপুর ইউনিয়নের রামচন্দ্রপুর গ্রামের মৃত মকবুল মিয়ার ছেলে উমান প্রবাসী মো. রশিদ মিয়ার সঙ্গে ২০১৫ সালে মৌলভীবাজার সদর উপজেলার গুজারাই গ্রামের মৃত শহিদ মিয়ার মেয়ে সেজুন জিয়াসমিন সেজি (২৪) এর বিয়ে হয়েছিল। জানা যায়,স্বামীর বাড়ি হতে গত ১৯ ডিসেম্বর তাঁর বাবার বাড়ির উদ্দেশ্যে বেড়াতে যান। বাবার বাড়ি যাবার সময় পরিবারের সদস্যদের অজান্তে নগদ ৩ লক্ষ টাকা, স্বর্ণ ৪ ভরি, ও প্রবাসী রশিদের ভাই জুনেল মিয়ার পাসপোর্ট ও মুল্যবান সামগ্রী নিয়ে যান। বাবার বাড়ি যাবার পরে স্বামীর বাড়িতে ফিরে না আসায় শনিবার (২৫ ডিসেম্বর) সকালে খোঁজ খবর নিতে প্রবাসী রশিদ মিয়ার পক্ষের লোকজন গুজারাই এলাকায় তার শশুর বাড়িতে যান। তারা সেজুন জিয়াসমিন সেজি’র মা ও পরিবারের লোকজন জানান (সেজি) গত শুক্রবার ২৪ ডিসেম্বর তারিখ রাতের কোন এক সময় তাদের বাড়ি থেকে নিখোঁজ হন।
প্রবাসী রশিদ মিয়া স্ত্রী নিখোজের খবরে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন এবং তিনি বলেন, আমার জীবনের চেয়ে আমার স্ত্রীকে বেশী বিশ্বাস করে সব কিছু তার দায়িত্বে রাখতাম।
এ বিষয়ে কমলগঞ্জ থানার এসআই ফজলে এলাহি জানান, একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি এ বিষয়ে তদন্ত চলছে।
এরকম এমন ঘটনা অনেক শহরেই ঘটে যাচ্ছে,কেউ যাচ্ছে প্রতিবেশির সাথে এবং এমনও শোনা যায় নিকট আত্মীয় ফুফা কিংবা চাচাতো-মামাতো ভাইয়ের সাথে গিয়ে কয়েকদিন থেকে ফিরে আসে।
সামাজিকভাবে পরিচিতরা সামাজিক দ্বায়বদ্ধতার জন‍্য এধরনের পরকিয়ায় ব‍্যাপারে না পারছে বলতে না পারছে সহ‍্য করতে, প্রতিবাদও করতে পারছে না।
বিভিন্ন তথ‍্য থেকে জানা যায় এসব ঘটনা বেশি ঘটে মহিলাদের মা-বাবার প্রসয়ের জন‍্য ।

পোস্ট শেয়ার করুন

কমলগঞ্জের রহিমপুরে প্রবাসীর স্ত্রী উধাও

আপডেটের সময় : ০৭:২৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ ডিসেম্বর ২০২১

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি : কমলগঞ্জ উপজেলায় নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকারসহ নিখোঁজ প্রবাসীর স্ত্রী। উপজেলার রহিমপুর ইউনিয়নের রামচন্দ্রপুর গ্রামে ওই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় প্রবাসীর ভাই শহিদ মিয়া বাদী হয়ে শনিবার ২৫ ডিসেম্বর কমলগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।
উপজেলার রহিমপুর ইউনিয়নের রামচন্দ্রপুর গ্রামের মৃত মকবুল মিয়ার ছেলে উমান প্রবাসী মো. রশিদ মিয়ার সঙ্গে ২০১৫ সালে মৌলভীবাজার সদর উপজেলার গুজারাই গ্রামের মৃত শহিদ মিয়ার মেয়ে সেজুন জিয়াসমিন সেজি (২৪) এর বিয়ে হয়েছিল। জানা যায়,স্বামীর বাড়ি হতে গত ১৯ ডিসেম্বর তাঁর বাবার বাড়ির উদ্দেশ্যে বেড়াতে যান। বাবার বাড়ি যাবার সময় পরিবারের সদস্যদের অজান্তে নগদ ৩ লক্ষ টাকা, স্বর্ণ ৪ ভরি, ও প্রবাসী রশিদের ভাই জুনেল মিয়ার পাসপোর্ট ও মুল্যবান সামগ্রী নিয়ে যান। বাবার বাড়ি যাবার পরে স্বামীর বাড়িতে ফিরে না আসায় শনিবার (২৫ ডিসেম্বর) সকালে খোঁজ খবর নিতে প্রবাসী রশিদ মিয়ার পক্ষের লোকজন গুজারাই এলাকায় তার শশুর বাড়িতে যান। তারা সেজুন জিয়াসমিন সেজি’র মা ও পরিবারের লোকজন জানান (সেজি) গত শুক্রবার ২৪ ডিসেম্বর তারিখ রাতের কোন এক সময় তাদের বাড়ি থেকে নিখোঁজ হন।
প্রবাসী রশিদ মিয়া স্ত্রী নিখোজের খবরে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন এবং তিনি বলেন, আমার জীবনের চেয়ে আমার স্ত্রীকে বেশী বিশ্বাস করে সব কিছু তার দায়িত্বে রাখতাম।
এ বিষয়ে কমলগঞ্জ থানার এসআই ফজলে এলাহি জানান, একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি এ বিষয়ে তদন্ত চলছে।
এরকম এমন ঘটনা অনেক শহরেই ঘটে যাচ্ছে,কেউ যাচ্ছে প্রতিবেশির সাথে এবং এমনও শোনা যায় নিকট আত্মীয় ফুফা কিংবা চাচাতো-মামাতো ভাইয়ের সাথে গিয়ে কয়েকদিন থেকে ফিরে আসে।
সামাজিকভাবে পরিচিতরা সামাজিক দ্বায়বদ্ধতার জন‍্য এধরনের পরকিয়ায় ব‍্যাপারে না পারছে বলতে না পারছে সহ‍্য করতে, প্রতিবাদও করতে পারছে না।
বিভিন্ন তথ‍্য থেকে জানা যায় এসব ঘটনা বেশি ঘটে মহিলাদের মা-বাবার প্রসয়ের জন‍্য ।