ঢাকা , রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এম নাসের রহমানের সমর্থনে কুয়েতে নির্বাচনী প্রচারনা সভা

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক:
  • আপডেটের সময় : ১১:৫২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ ডিসেম্বর ২০১৮
  • / ১৬৩৬ টাইম ভিউ

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন শুধু একটাও নির্বাচন নয়। এই নির্বাচনের উপর নির্ভর করছে বাংলাদেশের গণতন্ত্র, স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব। বিএনপিতে নেতৃত্বের প্রতিযোগীতা থাকতে পারে কিন্তু প্রতিহিংসা নয়। আসন্ন নির্বাচনে মৌলভীবাজার-৩ (মৌলভীবাজারের – রাজনগর ) আসনে বিএনপি ও ২৩ দলীয় জোট ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত প্রার্থী এম নাসের রহমান কে ধানের শীষ প্রতীকে বিজয়ী করতে হবে। এক্ষেত্রে কুয়েতে অবস্থানরত জাতীয়তাবাদী শক্তিসহ দেশপ্রেমিক জণগনকে এগিয়ে আসতে হবে। নাসের রহমান ক্যাম্পিংয়ের উদ্যোগে কুয়েতে অবস্হানরত মৌলভীবাজার বাসীদের মধ্যে নির্বাচনী প্রচারনা সভার আয়োজন করা হয় জিলিব আল সুয়েকের একটি অভিজাত রেস্টুরেন্টে । আব্দুল মুহিত নাজমুল এর সভাপতিত্বে ও শিহাব বখ্ত এর পরিচালনায় মন্চে অতিথীতে ছিলেন জাতীয়তাবাদী ফোরাম সিলেট বিভাগের সভাপতি মো: শওকত আলী ,জাতীয়তাবাদী ফোরামের উপদেষ্টা আবুল কালাম আজাদ, জাতীয়তাবাদী ফোরামের উপদেষ্টা ও মৌলভীবাজার জেলা যুবদলের অন্যতম সদস্য শেখ নিজামুর রহমান টিপু , জাতীয়তাবাদী ফোরাম সিলেট বিভাগের সহ সভাপতি ফারুখ আহমেদ, নির্বাচনী প্রচারনা সভায় বক্তব্য রাখেন সুমন আনসারী , ফয়সাল আহমেদ, রেজওয়ান আহমেদ, রাসেল আহমেদ , আব্দুর রুপ, সাহেল আহমেদ প্রমূখ । মৌলভীবাজার কুয়েত প্রবাসী ছাড়াও কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট, ইলেকট্রনিক ও অনলাইন মিডিয়ায় কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। একাদশ নির্বাচনকে সামনে রেখে মৌলভীবাজার- ৩ আসনে দল এই আসনে নাসের রহমান কে প্রার্থী দিয়েছে। আমরা মৌলভীবাজার প্রবাসীর বলতে চাই, এই এলাকার উন্নয়নের রুপকার এম সায়ফুর রহমানের সুযোগ্য উত্তরসুরী উনার সন্তান ধানের শীষ প্রতীকে আমাদের শতভাগ সমর্থন থাকবে এবং বিজয়ী করতে আনতে হবে। প্রবাসীরা নিজে ভোট দিতে না পারলেও দেশে বসবাসরত সকলের স্বজনদেরকে ধানের শীষে ভোট দিতে উদ্ধুদ্ধ করতে পারবেন । বক্তারা বলেন দেশে গনতন্ত্রকে পূনউদ্দার করতে হলে ধানের শীষে এম নাসের রহমান কে ভোট দিতে হবে । মায়ের মুক্তির আন্দোলনে থাকার শপথ নিন- ধানের শীষে ভোট দিন। দলের যে সিদান্ত হবে সবাইকে এক যুগে ঐক্যবদ্ব ভাবে বাকশালী ও জয় বাংলা জয় বঙ্গঁবন্ধু স্লোগানের বিরুদ্ধে নির্বাচনী লড়াইয়ে নামতে হবে।ত্রিশ তারিখ ভোট দিয়ে কেন্দ্র পাহারায় থাকতে হবে মনে রাখবেন ।

পোস্ট শেয়ার করুন

এম নাসের রহমানের সমর্থনে কুয়েতে নির্বাচনী প্রচারনা সভা

আপডেটের সময় : ১১:৫২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ ডিসেম্বর ২০১৮

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন শুধু একটাও নির্বাচন নয়। এই নির্বাচনের উপর নির্ভর করছে বাংলাদেশের গণতন্ত্র, স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব। বিএনপিতে নেতৃত্বের প্রতিযোগীতা থাকতে পারে কিন্তু প্রতিহিংসা নয়। আসন্ন নির্বাচনে মৌলভীবাজার-৩ (মৌলভীবাজারের – রাজনগর ) আসনে বিএনপি ও ২৩ দলীয় জোট ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত প্রার্থী এম নাসের রহমান কে ধানের শীষ প্রতীকে বিজয়ী করতে হবে। এক্ষেত্রে কুয়েতে অবস্থানরত জাতীয়তাবাদী শক্তিসহ দেশপ্রেমিক জণগনকে এগিয়ে আসতে হবে। নাসের রহমান ক্যাম্পিংয়ের উদ্যোগে কুয়েতে অবস্হানরত মৌলভীবাজার বাসীদের মধ্যে নির্বাচনী প্রচারনা সভার আয়োজন করা হয় জিলিব আল সুয়েকের একটি অভিজাত রেস্টুরেন্টে । আব্দুল মুহিত নাজমুল এর সভাপতিত্বে ও শিহাব বখ্ত এর পরিচালনায় মন্চে অতিথীতে ছিলেন জাতীয়তাবাদী ফোরাম সিলেট বিভাগের সভাপতি মো: শওকত আলী ,জাতীয়তাবাদী ফোরামের উপদেষ্টা আবুল কালাম আজাদ, জাতীয়তাবাদী ফোরামের উপদেষ্টা ও মৌলভীবাজার জেলা যুবদলের অন্যতম সদস্য শেখ নিজামুর রহমান টিপু , জাতীয়তাবাদী ফোরাম সিলেট বিভাগের সহ সভাপতি ফারুখ আহমেদ, নির্বাচনী প্রচারনা সভায় বক্তব্য রাখেন সুমন আনসারী , ফয়সাল আহমেদ, রেজওয়ান আহমেদ, রাসেল আহমেদ , আব্দুর রুপ, সাহেল আহমেদ প্রমূখ । মৌলভীবাজার কুয়েত প্রবাসী ছাড়াও কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট, ইলেকট্রনিক ও অনলাইন মিডিয়ায় কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। একাদশ নির্বাচনকে সামনে রেখে মৌলভীবাজার- ৩ আসনে দল এই আসনে নাসের রহমান কে প্রার্থী দিয়েছে। আমরা মৌলভীবাজার প্রবাসীর বলতে চাই, এই এলাকার উন্নয়নের রুপকার এম সায়ফুর রহমানের সুযোগ্য উত্তরসুরী উনার সন্তান ধানের শীষ প্রতীকে আমাদের শতভাগ সমর্থন থাকবে এবং বিজয়ী করতে আনতে হবে। প্রবাসীরা নিজে ভোট দিতে না পারলেও দেশে বসবাসরত সকলের স্বজনদেরকে ধানের শীষে ভোট দিতে উদ্ধুদ্ধ করতে পারবেন । বক্তারা বলেন দেশে গনতন্ত্রকে পূনউদ্দার করতে হলে ধানের শীষে এম নাসের রহমান কে ভোট দিতে হবে । মায়ের মুক্তির আন্দোলনে থাকার শপথ নিন- ধানের শীষে ভোট দিন। দলের যে সিদান্ত হবে সবাইকে এক যুগে ঐক্যবদ্ব ভাবে বাকশালী ও জয় বাংলা জয় বঙ্গঁবন্ধু স্লোগানের বিরুদ্ধে নির্বাচনী লড়াইয়ে নামতে হবে।ত্রিশ তারিখ ভোট দিয়ে কেন্দ্র পাহারায় থাকতে হবে মনে রাখবেন ।