ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এবার হচ্ছে না জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা

দেশ দিগন্ত ডেক্স:
  • আপডেটের সময় : ১০:৫০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৭ অগাস্ট ২০২০
  • / ৪০৩ টাইম ভিউ

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে ২০২০ সালের জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা হবে না। বৃহস্পতিবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞতিতে এ তথ্য জানানো হয়।

সূত্র জানিয়েছে, গত ২৩ আগস্ট জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা বাতিলের প্রস্তাবনা সংক্রান্ত সারসংক্ষেপ প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠানো হয়। সেই সারসংক্ষেপে সম্মতি দেন প্রধানমন্ত্রী।

সরকারপ্রধানের সম্মতিপত্র আজ বৃহস্পতিবার মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগে পাঠানো হয়। পরবর্তী করণীয় নির্ধারণে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ কাজ করছে বলে জানা গেছে।

কর্মকর্তারা বলছেন, করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে এ দুই স্তরের পাবলিক পরীক্ষা বাতিল হওয়ায় ক্লাস মূল্যায়নের মাধ্যমে পাস করিয়ে সার্টিফিকেট দেয়া হবে।

এদিকে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি ৩ অক্টোবর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

এর আগে গত ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হওয়ার পর ১৮ মার্চ দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ৩১ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করা হয়। দেশে করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকায় পরবর্তীতে কয়েক দফায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি বর্ধিত করা হয়। সবশেষ চলমান এ ছুটি ৩১ আগস্ট পর্যন্ত ছিলো।

পোস্ট শেয়ার করুন

এবার হচ্ছে না জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা

আপডেটের সময় : ১০:৫০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৭ অগাস্ট ২০২০

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে ২০২০ সালের জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা হবে না। বৃহস্পতিবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞতিতে এ তথ্য জানানো হয়।

সূত্র জানিয়েছে, গত ২৩ আগস্ট জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা বাতিলের প্রস্তাবনা সংক্রান্ত সারসংক্ষেপ প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠানো হয়। সেই সারসংক্ষেপে সম্মতি দেন প্রধানমন্ত্রী।

সরকারপ্রধানের সম্মতিপত্র আজ বৃহস্পতিবার মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগে পাঠানো হয়। পরবর্তী করণীয় নির্ধারণে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ কাজ করছে বলে জানা গেছে।

কর্মকর্তারা বলছেন, করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে এ দুই স্তরের পাবলিক পরীক্ষা বাতিল হওয়ায় ক্লাস মূল্যায়নের মাধ্যমে পাস করিয়ে সার্টিফিকেট দেয়া হবে।

এদিকে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি ৩ অক্টোবর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

এর আগে গত ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হওয়ার পর ১৮ মার্চ দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ৩১ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করা হয়। দেশে করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকায় পরবর্তীতে কয়েক দফায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি বর্ধিত করা হয়। সবশেষ চলমান এ ছুটি ৩১ আগস্ট পর্যন্ত ছিলো।