ঢাকা , শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা রিডানডেন্ট ক্লোথিং আর মজুর মামার ‘বিশ্বকাপ’ ইউরোপের সবচেয়ে বড় ঈদুল ফিতরের নামাজ পর্তুগালে অনুষ্ঠিত হয় বর্ণাঢ্য আয়োজনে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের ইফতার ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন ঈদের কাপড় কিনার জন্য মা’য়ের উপর অভিমান করে মেয়ের আত্মহত্যা লিসবনে বন্ধু মহলের আয়োজনে বিশাল ইফতার ও দোয়া মাহফিল মান অভিমান ভুলে সবাই একই প্লাটফর্মে,সংবাদ সম্মেলনে পর্তুগাল বিএনপির নবগঠিত আহবায়ক কমিটি ইতালির ভিসেন্সায় সিলেট ডায়নামিক অ্যাসোসিয়েশনের আয়োজনে ইফতার ও দোয়া অনুষ্ঠিত

এইচএসসির ফল ঘোষণা: পাসের হার ৬৮.৯১ শতাংশ

অনলাইন ডেস্ক :
  • আপডেটের সময় : ০২:২৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুলাই ২০১৭
  • / ১০৬৩ টাইম ভিউ

এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। এবারে সারাদেশে পাসের হার ৬৮.৯১। জিপিএ-৫ পেয়েছেন ৩৭ হাজার ৭২৬ জন।রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বিভিন্ন শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানদের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে ফল তুলে দেন শিক্ষামন্ত্রী।

মাদ্রাসা বোর্ডে পাসের হার ৭৭ দশমিক ০২ শতাংশ। জিপিএ ৫ পেয়েছে ১ হাজার ৮১৫ জন। কারিগরি বোর্ডে পাসের হার ৮১ দশমিক ৩৩ শতাংশ। জিপিএ ৫ পেয়েছে ২ হাজার ৬৬৯ জন।দিনাজপুর বোর্ডে পাসের হার ৬৫.৪৪ শতাংশ, জিপিএ ৫-পেয়েছে ২৯৮৭ জন, রাজশাহী বোর্ডে পাসের হার ৭১.৩০ শতাংশ, জিপিএ- ৫ পেয়েছেন ৫২৯৪ জন, বরিশালে পাসের হার ৭০.২৮ শতাংশ, জিপিএ- ৫ পেয়েছেন ৮১৫ জন, চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডে পাসের হার ৬১.০৯ শতাংশ, ঢাকা বোর্ডে পাসের হার ৬৯.৭৪ শতাংশ, কুমিল্লা বোর্ডের পাসের হার ৪৯.৫২ শতাংশ, যশোর বোর্ডে পাসের হার ৭০.০২ শতাংশ এবং সিলেট বোর্ডের পাসের হার ৭২.০০ শতাংশ। এবছর এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হয় ২ এপ্রিল। এবার আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ড, মাদরাসা ও কারিগরি বোর্ডের অধীনে ১১ লাখ ৮৩ হাজার ৬৮৬ জন শিক্ষার্থী এ পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন। তত্ত্বীয় (লিখিত) পরীক্ষা শেষ হয় ১৫ মে। ব্যবহারিক পরীক্ষা ১৬ মে শুরু হয়। শেষ হয় ২৫ মে।আটটি সাধারণ বোর্ডের অধীনে ৯ লাখ ৮২ হাজার ৭৮৩ জন, মাদরাসা বোর্ডের অধীনে আলিমে ৯৯ হাজার ৩২০ জন, কারিগরি বোর্ডের অধীনে এইচএসসি বিএমে ৯৬ হাজার ৯১৪ জন এবং ডিআইবিএসে চার হাজার ৬৬৯ জন পরীক্ষা দেন। মোট পরীক্ষার্থীর মধ্যে ছয় লাখ ৩৫ হাজার ৬৯৭ জন ছাত্র এবং পাঁচ লাখ ৪৭ হাজার ৯৮৯ জন ছাত্রী।এদিকে দুপুর ২টার পর শিক্ষার্থীরা সংশ্লিষ্ট বোর্ডের ওয়েবসাইট, নিজস্ব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট ও টেলিটক মোবাইল ফোনে এসএমএসের মাধ্যমে ফল জানতে পারবেন।

ফল জানা যাবে যেভাবেপরীক্ষার্থীরা শিক্ষা বোর্ডগুলোর ওয়েবসাইট www.educationboardresults.gov.bd এবং সংশ্লিষ্ট বোর্ডের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল সংগ্রহ করতে পারবেন।আটটি সাধারণ বোর্ডের ক্ষেত্রে এসএমএসের মাধ্যমে ফল জানতে হলে- মোবাইল ফোনের মেসেজ অপশনে গিয়ে HSC লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর, স্পেস দিয়ে রোল নম্বর, স্পেস দিয়ে 2017 লিখে 16222 নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে।আর আলিমের ক্ষেত্রে ফল জানতে Alim লিখে স্পেস দিয়ে Mad (বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর) স্পেস দিয়ে রোল নম্বর, স্পেস দিয়ে 2017 লিখে 16222 নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে।এছাড়া এইচএসসি ভোকেশনালের ফল জানতে HSC লিখে স্পেস দিয়ে Tec লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে 2017 লিখে 16222 নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে। তিন ক্ষেত্রেই ফিরতি এসএমএসে পরীক্ষা ফল জানিয়ে দেয়া মোবাইল কোম্পানিগুলো।

পোস্ট শেয়ার করুন

এইচএসসির ফল ঘোষণা: পাসের হার ৬৮.৯১ শতাংশ

আপডেটের সময় : ০২:২৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুলাই ২০১৭

এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। এবারে সারাদেশে পাসের হার ৬৮.৯১। জিপিএ-৫ পেয়েছেন ৩৭ হাজার ৭২৬ জন।রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বিভিন্ন শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানদের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে ফল তুলে দেন শিক্ষামন্ত্রী।

মাদ্রাসা বোর্ডে পাসের হার ৭৭ দশমিক ০২ শতাংশ। জিপিএ ৫ পেয়েছে ১ হাজার ৮১৫ জন। কারিগরি বোর্ডে পাসের হার ৮১ দশমিক ৩৩ শতাংশ। জিপিএ ৫ পেয়েছে ২ হাজার ৬৬৯ জন।দিনাজপুর বোর্ডে পাসের হার ৬৫.৪৪ শতাংশ, জিপিএ ৫-পেয়েছে ২৯৮৭ জন, রাজশাহী বোর্ডে পাসের হার ৭১.৩০ শতাংশ, জিপিএ- ৫ পেয়েছেন ৫২৯৪ জন, বরিশালে পাসের হার ৭০.২৮ শতাংশ, জিপিএ- ৫ পেয়েছেন ৮১৫ জন, চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডে পাসের হার ৬১.০৯ শতাংশ, ঢাকা বোর্ডে পাসের হার ৬৯.৭৪ শতাংশ, কুমিল্লা বোর্ডের পাসের হার ৪৯.৫২ শতাংশ, যশোর বোর্ডে পাসের হার ৭০.০২ শতাংশ এবং সিলেট বোর্ডের পাসের হার ৭২.০০ শতাংশ। এবছর এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হয় ২ এপ্রিল। এবার আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ড, মাদরাসা ও কারিগরি বোর্ডের অধীনে ১১ লাখ ৮৩ হাজার ৬৮৬ জন শিক্ষার্থী এ পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন। তত্ত্বীয় (লিখিত) পরীক্ষা শেষ হয় ১৫ মে। ব্যবহারিক পরীক্ষা ১৬ মে শুরু হয়। শেষ হয় ২৫ মে।আটটি সাধারণ বোর্ডের অধীনে ৯ লাখ ৮২ হাজার ৭৮৩ জন, মাদরাসা বোর্ডের অধীনে আলিমে ৯৯ হাজার ৩২০ জন, কারিগরি বোর্ডের অধীনে এইচএসসি বিএমে ৯৬ হাজার ৯১৪ জন এবং ডিআইবিএসে চার হাজার ৬৬৯ জন পরীক্ষা দেন। মোট পরীক্ষার্থীর মধ্যে ছয় লাখ ৩৫ হাজার ৬৯৭ জন ছাত্র এবং পাঁচ লাখ ৪৭ হাজার ৯৮৯ জন ছাত্রী।এদিকে দুপুর ২টার পর শিক্ষার্থীরা সংশ্লিষ্ট বোর্ডের ওয়েবসাইট, নিজস্ব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট ও টেলিটক মোবাইল ফোনে এসএমএসের মাধ্যমে ফল জানতে পারবেন।

ফল জানা যাবে যেভাবেপরীক্ষার্থীরা শিক্ষা বোর্ডগুলোর ওয়েবসাইট www.educationboardresults.gov.bd এবং সংশ্লিষ্ট বোর্ডের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল সংগ্রহ করতে পারবেন।আটটি সাধারণ বোর্ডের ক্ষেত্রে এসএমএসের মাধ্যমে ফল জানতে হলে- মোবাইল ফোনের মেসেজ অপশনে গিয়ে HSC লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর, স্পেস দিয়ে রোল নম্বর, স্পেস দিয়ে 2017 লিখে 16222 নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে।আর আলিমের ক্ষেত্রে ফল জানতে Alim লিখে স্পেস দিয়ে Mad (বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর) স্পেস দিয়ে রোল নম্বর, স্পেস দিয়ে 2017 লিখে 16222 নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে।এছাড়া এইচএসসি ভোকেশনালের ফল জানতে HSC লিখে স্পেস দিয়ে Tec লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে 2017 লিখে 16222 নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে। তিন ক্ষেত্রেই ফিরতি এসএমএসে পরীক্ষা ফল জানিয়ে দেয়া মোবাইল কোম্পানিগুলো।