ঢাকা , সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
বাংলাদেশে কোটা আন্দোলনে হত্যার প্রতিবাদে পর্তুগালে বিক্ষোভ করেছে বাংলাদেশী প্রবাসীরা প্রিয়জনদের মানসিক রোগ যদি আপনজন বুঝতে না পারেন আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা ও অভিষেক অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা করেছে পর্তুগাল আওয়ামীলীগ যেকোনো প্রচেষ্টা এককভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব নয়: দুদক সচিব শ্রীমঙ্গলে দুটি চোরাই মোটরসাইকেল সহ মিল্টন কুমার আটক পর্তুগালের অভিবাসন আইনে ব্যাপক পরিবর্তন পর্তুগাল বিএনপি আহবায়ক কমিটির জুমে জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয় এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর

ঈদে রাজধানীতে নিরাপত্তা নিশ্চিত করাই প্রধান লক্ষ্য

অনলাইন ডেস্ক :
  • আপডেটের সময় : ১১:৫০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ জুন ২০১৭
  • / ১৩০৩ টাইম ভিউ

ঈদে রাজধানী অনেকটাই ফাঁকা হয়ে পড়বে। বেশীর ভাগ বাড়ি, দোকানপাট খালি হয়ে পড়বে। ফাঁকা হয়ে যাওয়া রাজধানীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করাই আমাদের প্রধান লক্ষ্য। বললেন র‌্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) বেনজীর আহমেদ।বৃহস্পতিবার রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশনে নিরাপত্তা ব্যবস্থা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি। র‌্যাবের মহাপরিচালক বলেন, আসছে ঈদকে সামনে রেখে রাজধানীসহ সারাদেশে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।তিনি বলেন, শুধু মাত্র ঈদের নিরাপত্তা র‌্যাব দেয় না। ৩৬৫ দিনই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে গুরুত্বপূর্ণ। আমরা প্রতি দিনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে চিন্তা করি, প্রতিটি জীবনই মূল্যবান।বেনজীর বলেন, ঈদকে সামনে রেখে এরইমধ্যে নগরীর বিপণীবিতাগুলোর নিরাপত্তার দিকে নজর দেয়া হয়েছে। বিভিন্ন স্টেশন, ফেরিঘাট, লঞ্চঘাটে র‌্যাবের ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে। নগরীজুড়ে পেট্রল টিম, মোটরসাইকেল পেট্রল ও সাদা পোশাকে পেট্রল টিম বাড়ানো হয়েছে।তিনি বলেন, এখন চোরাকারবারী, পকেটমার, অজ্ঞানপার্টির দৌরাত্ম নেই। অগ্রিম টিকিট বিক্রি নিয়ে কেউ কোনো অভিযোগ করেনি।র‌্যাবের মহাপরিচালক বলেন, আস্তে আস্তে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযানে দুর্বল হয়ে পড়েছে জঙ্গিগোষ্ঠীগুলো। তাদেরকে নিশ্চিন্ন করে প্রতিটি দিন নিরাপদ করতেই আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

পোস্ট শেয়ার করুন

ঈদে রাজধানীতে নিরাপত্তা নিশ্চিত করাই প্রধান লক্ষ্য

আপডেটের সময় : ১১:৫০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ জুন ২০১৭

ঈদে রাজধানী অনেকটাই ফাঁকা হয়ে পড়বে। বেশীর ভাগ বাড়ি, দোকানপাট খালি হয়ে পড়বে। ফাঁকা হয়ে যাওয়া রাজধানীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করাই আমাদের প্রধান লক্ষ্য। বললেন র‌্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) বেনজীর আহমেদ।বৃহস্পতিবার রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশনে নিরাপত্তা ব্যবস্থা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি। র‌্যাবের মহাপরিচালক বলেন, আসছে ঈদকে সামনে রেখে রাজধানীসহ সারাদেশে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।তিনি বলেন, শুধু মাত্র ঈদের নিরাপত্তা র‌্যাব দেয় না। ৩৬৫ দিনই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে গুরুত্বপূর্ণ। আমরা প্রতি দিনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে চিন্তা করি, প্রতিটি জীবনই মূল্যবান।বেনজীর বলেন, ঈদকে সামনে রেখে এরইমধ্যে নগরীর বিপণীবিতাগুলোর নিরাপত্তার দিকে নজর দেয়া হয়েছে। বিভিন্ন স্টেশন, ফেরিঘাট, লঞ্চঘাটে র‌্যাবের ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে। নগরীজুড়ে পেট্রল টিম, মোটরসাইকেল পেট্রল ও সাদা পোশাকে পেট্রল টিম বাড়ানো হয়েছে।তিনি বলেন, এখন চোরাকারবারী, পকেটমার, অজ্ঞানপার্টির দৌরাত্ম নেই। অগ্রিম টিকিট বিক্রি নিয়ে কেউ কোনো অভিযোগ করেনি।র‌্যাবের মহাপরিচালক বলেন, আস্তে আস্তে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযানে দুর্বল হয়ে পড়েছে জঙ্গিগোষ্ঠীগুলো। তাদেরকে নিশ্চিন্ন করে প্রতিটি দিন নিরাপদ করতেই আমরা কাজ করে যাচ্ছি।