ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
প্রিয়জনদের মানসিক রোগ যদি আপনজন বুঝতে না পারেন আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা ও অভিষেক অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা করেছে পর্তুগাল আওয়ামীলীগ যেকোনো প্রচেষ্টা এককভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব নয়: দুদক সচিব শ্রীমঙ্গলে দুটি চোরাই মোটরসাইকেল সহ মিল্টন কুমার আটক পর্তুগালের অভিবাসন আইনে ব্যাপক পরিবর্তন পর্তুগাল বিএনপি আহবায়ক কমিটির জুমে জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয় এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর মুটো ফোনের আসক্তি দূর করবেন যেভাবে…

আরও এক লাখ শিক্ষক নিয়োগ দেবে এনটিআরসিএ

দেশদিগন্ত নিউজ ডেক্সঃ
  • আপডেটের সময় : ০৮:০২ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০১৯
  • / ৯৮৩ টাইম ভিউ

দেশদিগন্ত নিউজ ডেক্সঃ নতুন বছরে আরো ১ লাখ বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। জেলা শিক্ষা অফিসের মাধ্যমে ইতিমধ্যে চলতি বছরের ডিসেম্বর পর্যন্ত শূন্য পদের তালিকা সংগ্রহ করা হয়েছে। সেই তালিকা ধরে নিয়োগ দেয়ার সুপারিশ করার প্রক্রিয়া শুরু করেছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। সম্প্রতি জাতীয় মেধায় প্রায় ৪০ হাজার শিক্ষক নিয়োগের পর ১৫ এবং ১৬তম নিবন্ধনের মাধ্যমে এ পদগুলোতে নিয়োগ দেয়া হবে। এনটিআরসিএ চেয়ারম্যান এসএম আশফাক হুসেন গত বৃহস্পতিবার সিলেটে অনুষ্ঠিত এক গণ শুনানিতে এ নিয়োগের তথ্য প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন, ‘চলতি বছর এক লাখ বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগ দেয়ার টার্গেট আছে। ইতিমধ্যে জাতীয় মেধায় প্রায় ৪০ হাজার নিয়োগের সুপারিশ করে তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। আগামী ডিসেম্বর পর্যন্ত আরও ৬০ হাজার পদ ফাঁকা হবে। চলতি বছর আরও দুটি নিবন্ধন পরীক্ষার মাধ্যমে এ ৬০ হাজার পদে শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে।’

সংশ্লিষ্টরা জানান, বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে প্রায় ৪০ হাজার শূন্যপদে নিয়োগের জন্য জাতীয় মেধা তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে ২৪ জানুয়ারি। গত ১৮ই ডিসেম্বর বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রায় ৪০ হাজার শূন্য পদে শিক্ষক নিয়োগ দিতে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে এনটিআরসিএ। এ বিজ্ঞপ্তি অনুসারে শিক্ষক পদে প্রায় ৩১ লাখ আবেদন জমা পড়ে।

জানা যায়, ১৫তম নিবন্ধন পরীক্ষার তারিখ শিগগিরই প্রকাশ করবে এবং ১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে। এনটিআরসিএ’র কর্মকর্তারা বলেন, সারা দেশের বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শূন্য পদে শিক্ষক নিয়োগ দিতে দুই দফা তালিকা সংগ্রহ করা হয়েছে। এরমধ্যে ৩৯ হাজার ৫৩৫টি শূন্য পদের চাহিদার বিপরীতে জাতীয় মেধা তালিকায় আবেদন সংগ্রহ করে চূড়ান্ত নিয়োগের জন্য তালিকা প্রকাশ করে সুপারিশ করা হয়েছে। নির্বাচিত প্রার্থীর মোবাইল ফোনে এসএমসের মাধ্যমে তা জানিয়ে দেয়া হয়েছে।

পোস্ট শেয়ার করুন

আরও এক লাখ শিক্ষক নিয়োগ দেবে এনটিআরসিএ

আপডেটের সময় : ০৮:০২ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০১৯

দেশদিগন্ত নিউজ ডেক্সঃ নতুন বছরে আরো ১ লাখ বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। জেলা শিক্ষা অফিসের মাধ্যমে ইতিমধ্যে চলতি বছরের ডিসেম্বর পর্যন্ত শূন্য পদের তালিকা সংগ্রহ করা হয়েছে। সেই তালিকা ধরে নিয়োগ দেয়ার সুপারিশ করার প্রক্রিয়া শুরু করেছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। সম্প্রতি জাতীয় মেধায় প্রায় ৪০ হাজার শিক্ষক নিয়োগের পর ১৫ এবং ১৬তম নিবন্ধনের মাধ্যমে এ পদগুলোতে নিয়োগ দেয়া হবে। এনটিআরসিএ চেয়ারম্যান এসএম আশফাক হুসেন গত বৃহস্পতিবার সিলেটে অনুষ্ঠিত এক গণ শুনানিতে এ নিয়োগের তথ্য প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন, ‘চলতি বছর এক লাখ বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগ দেয়ার টার্গেট আছে। ইতিমধ্যে জাতীয় মেধায় প্রায় ৪০ হাজার নিয়োগের সুপারিশ করে তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। আগামী ডিসেম্বর পর্যন্ত আরও ৬০ হাজার পদ ফাঁকা হবে। চলতি বছর আরও দুটি নিবন্ধন পরীক্ষার মাধ্যমে এ ৬০ হাজার পদে শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে।’

সংশ্লিষ্টরা জানান, বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে প্রায় ৪০ হাজার শূন্যপদে নিয়োগের জন্য জাতীয় মেধা তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে ২৪ জানুয়ারি। গত ১৮ই ডিসেম্বর বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রায় ৪০ হাজার শূন্য পদে শিক্ষক নিয়োগ দিতে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে এনটিআরসিএ। এ বিজ্ঞপ্তি অনুসারে শিক্ষক পদে প্রায় ৩১ লাখ আবেদন জমা পড়ে।

জানা যায়, ১৫তম নিবন্ধন পরীক্ষার তারিখ শিগগিরই প্রকাশ করবে এবং ১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে। এনটিআরসিএ’র কর্মকর্তারা বলেন, সারা দেশের বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শূন্য পদে শিক্ষক নিয়োগ দিতে দুই দফা তালিকা সংগ্রহ করা হয়েছে। এরমধ্যে ৩৯ হাজার ৫৩৫টি শূন্য পদের চাহিদার বিপরীতে জাতীয় মেধা তালিকায় আবেদন সংগ্রহ করে চূড়ান্ত নিয়োগের জন্য তালিকা প্রকাশ করে সুপারিশ করা হয়েছে। নির্বাচিত প্রার্থীর মোবাইল ফোনে এসএমসের মাধ্যমে তা জানিয়ে দেয়া হয়েছে।