ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
প্রিয়জনদের মানসিক রোগ যদি আপনজন বুঝতে না পারেন আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা ও অভিষেক অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা করেছে পর্তুগাল আওয়ামীলীগ যেকোনো প্রচেষ্টা এককভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব নয়: দুদক সচিব শ্রীমঙ্গলে দুটি চোরাই মোটরসাইকেল সহ মিল্টন কুমার আটক পর্তুগালের অভিবাসন আইনে ব্যাপক পরিবর্তন পর্তুগাল বিএনপি আহবায়ক কমিটির জুমে জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয় এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর মুটো ফোনের আসক্তি দূর করবেন যেভাবে…

আমেরিকান মনোবিজ্ঞানী লিসা শানকিনের ইসলাম গ্রহণ

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ
  • আপডেটের সময় : ১২:০৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৯
  • / ৮৬৮ টাইম ভিউ

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং তার সমর্থকেরা নির্বাচনী প্রচারণার সময় থেকে মুসলিম ও ইসলামভীতি অনুভূতি প্রকাশ আসছেন। তাদের ইসলামভীতির কারণে দেশটিতে মুসলিমরা বিশেষ করে মুসলিম নারীরা নানা হেনস্তার শিকার হচ্ছেন।

তারপরেও দেশটিতে থেমে নেই ইসলামের জয়যাত্রা। মুসলমানদের বিরুদ্ধে ডোনাল্ড ট্রাম্পের ঘৃণাত্মক ভাষা ব্যবহার বরং দেশটির অমুসলিমদের ইসলাম ও কোরআন নিয়ে গবেষণা করতে উৎসাহিত করছে এবং পরে তারা ইসলামকেই আঁকড়ে ধরছে। তেমনই একজন লিসা শানকিন। মুসলমানদের বিরুদ্ধে ডোনাল্ড ট্রাম্পের ঘৃণাত্মক বক্তৃতা এই আমেরিকান নারীকে ইসলামে ধর্মান্তরিত করতে সহায়তা করেছে।

তার ইসলাম গ্রহণ নিয়ে সম্প্রতি তিনি সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকে একটি পোস্ট দিলে তা মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায়। লিসা শানকিন একজন সাবেক সাইকোথেরাপিস্ট। তিনি মনোবিজ্ঞানের ওপর শার্লট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি থেকে গ্রাজুয়েট সম্পন্ন করেন।

তিনি তার ফেসবুকে পেজে লিখেছেন, ট্রাম্পের ঘৃণ্য বাগাড়ম্বরপূর্ণ উক্তি আমাকে একটি বছর আগে কোরআন নিয়ে অধ্যয়ন করতে পরিচালিত করেছে (বিশ্ববিদ্যালয়ে তুলনামূলক ধর্মের অধ্যয়নের সময় যা আমার পড়া হয়নি) এবং ঘনিষ্ঠভাবে এটি অধ্যয়ন করছি। শানকিন ২০১৭ সালের জানুয়ারি থেকে হিজাব পরা শুরু করেন। এ দিন ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেন।

তিনি বলেন, আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম যে ২০১৭ সালের ২০ জানুয়ারি যে দিন ট্রাম্প শপথ নিবেন; সেই দিন থেকে আমার প্রকাশ্যে হিজাব পরা শুরু হবে। বিশ্বে আমেরিকাতেই সবচেয়ে বেশি ইসলামে ধর্মান্তরের ঘটনা ঘটছে। ৯/১১ পর মুসলমানদের বিরুদ্ধে তীব্র ঘৃণা ছড়ালেও সেখানে এ পর্যন্ত প্রায় দুই হাজার মানুষ ইসলাম গ্রহণ করেছে।

পোস্ট শেয়ার করুন

আমেরিকান মনোবিজ্ঞানী লিসা শানকিনের ইসলাম গ্রহণ

আপডেটের সময় : ১২:০৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৯

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং তার সমর্থকেরা নির্বাচনী প্রচারণার সময় থেকে মুসলিম ও ইসলামভীতি অনুভূতি প্রকাশ আসছেন। তাদের ইসলামভীতির কারণে দেশটিতে মুসলিমরা বিশেষ করে মুসলিম নারীরা নানা হেনস্তার শিকার হচ্ছেন।

তারপরেও দেশটিতে থেমে নেই ইসলামের জয়যাত্রা। মুসলমানদের বিরুদ্ধে ডোনাল্ড ট্রাম্পের ঘৃণাত্মক ভাষা ব্যবহার বরং দেশটির অমুসলিমদের ইসলাম ও কোরআন নিয়ে গবেষণা করতে উৎসাহিত করছে এবং পরে তারা ইসলামকেই আঁকড়ে ধরছে। তেমনই একজন লিসা শানকিন। মুসলমানদের বিরুদ্ধে ডোনাল্ড ট্রাম্পের ঘৃণাত্মক বক্তৃতা এই আমেরিকান নারীকে ইসলামে ধর্মান্তরিত করতে সহায়তা করেছে।

তার ইসলাম গ্রহণ নিয়ে সম্প্রতি তিনি সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকে একটি পোস্ট দিলে তা মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায়। লিসা শানকিন একজন সাবেক সাইকোথেরাপিস্ট। তিনি মনোবিজ্ঞানের ওপর শার্লট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি থেকে গ্রাজুয়েট সম্পন্ন করেন।

তিনি তার ফেসবুকে পেজে লিখেছেন, ট্রাম্পের ঘৃণ্য বাগাড়ম্বরপূর্ণ উক্তি আমাকে একটি বছর আগে কোরআন নিয়ে অধ্যয়ন করতে পরিচালিত করেছে (বিশ্ববিদ্যালয়ে তুলনামূলক ধর্মের অধ্যয়নের সময় যা আমার পড়া হয়নি) এবং ঘনিষ্ঠভাবে এটি অধ্যয়ন করছি। শানকিন ২০১৭ সালের জানুয়ারি থেকে হিজাব পরা শুরু করেন। এ দিন ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেন।

তিনি বলেন, আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম যে ২০১৭ সালের ২০ জানুয়ারি যে দিন ট্রাম্প শপথ নিবেন; সেই দিন থেকে আমার প্রকাশ্যে হিজাব পরা শুরু হবে। বিশ্বে আমেরিকাতেই সবচেয়ে বেশি ইসলামে ধর্মান্তরের ঘটনা ঘটছে। ৯/১১ পর মুসলমানদের বিরুদ্ধে তীব্র ঘৃণা ছড়ালেও সেখানে এ পর্যন্ত প্রায় দুই হাজার মানুষ ইসলাম গ্রহণ করেছে।