ঢাকা , শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
প্রিয়জনদের মানসিক রোগ যদি আপনজন বুঝতে না পারেন আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা ও অভিষেক অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা করেছে পর্তুগাল আওয়ামীলীগ যেকোনো প্রচেষ্টা এককভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব নয়: দুদক সচিব শ্রীমঙ্গলে দুটি চোরাই মোটরসাইকেল সহ মিল্টন কুমার আটক পর্তুগালের অভিবাসন আইনে ব্যাপক পরিবর্তন পর্তুগাল বিএনপি আহবায়ক কমিটির জুমে জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয় এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর মুটো ফোনের আসক্তি দূর করবেন যেভাবে…

আজ কুলাউড়া বিএনপির কাউন্সিলে কারা হচ্ছেন সভাপতি, সম্পাদক

ছয়ফুল আলম সাইফুলঃ
  • আপডেটের সময় : ০৯:১৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০১৯
  • / ১০০৭ টাইম ভিউ

ছয়ফুল আলম সাইফুলঃ আজ কুলাউড়া বিএনপির কাউন্সিলে কারা হচ্ছেন সভাপতি, সম্পাদক ১৫ বছর পর অনুষ্ঠিত হচ্ছে কুলাউড়া উপজেলা বিএনপির সম্মেলন ও কাউন্সিল। আজ ১৫ জুন শনিবার অনুষ্ঠিত হবে বহুল প্রতীক্ষিত এ সম্মেলন ও কাউন্সিল। যাকে ঘিরে প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে নেতাকর্মীদের মাঝে। হামলা-মামলা, জেল-জুলুম ও নির্বাচন পরবর্তী এ কাউন্সিলই নতুন উদ্যোমে বিএনপিকে দাঁড় করাবে বলে অভিমত নেতাকর্মীদের। কাউন্সিলারদের ভোটে যোগ্য নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠিত হবে বলে দৃঢ় বিশ্বাস তৃণমূলের নেতাদের। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে ত্যাগী ও জেল জুলুমে নির্যাতিতদের প্রতি সফট্ কর্ণার রয়েছে ভোটারদের।
সূত্র জানায়, ১০ জুন সোমবার দুপুরে উপজেলা বিএনপির কার্যালয় থেকে মনোনয়ন ফরম বিতরণ করা হয়। ৩ পদে ১৩ জন প্রার্থী মনোনয়ন ক্রয় করেন। মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও কুলাউড়া উপজেলা বিএনপির আহবায়ক অ্যাডভোকেট আবেদ রাজা মনোনয়ন ফরম বিতরণ কার্যক্রমের উদ্ভোধন করেন। সভাপতি পদে ৩ জন মনোনয়ন সংগ্রহ করেন। তারা হলেন, উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি, সাবেক পৌর মেয়র ও জেলা বিএনপির সদস্য কামাল উদ্দিন আহমদ জুনেদ, উপজেলা বিএনপির সাবেক (ভারপ্রাপ্ত) সভাপতি ও পৌর প্যানেল মেয়র কারা নির্যাতিত নেতা জয়নাল আবেদীন বাচ্চু, সাবেক সাধারণ সম্পাদক, জেলা বিএনপির সদস্য ও কারা নির্যাতিত নেতা এমএ মজিদ।
সাধারণ সম্পাদক পদে মনোনয়ন সংগ্রহ করেন সাবেক ছাত্রনেতা ও উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক, জেলা বিএনপির সদস্য রেদওয়ান খান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক, জেলা বিএনপির সদস্য বদরুজ্জামান সজল, সাবেক সহ-সাধারণ সম্পাদক জয়নুল ইসলাম জুনেদ, সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক জয়নাল আবেদীন খাঁন।
সাংগঠনিক পদে মনোনয়নপত্র গ্রহন করেন কারা নির্যাতিত নেতা, উপজেলা ছাত্রদল ও যুবদলের সাবেক আহবায়ক সুফিয়ান আহমদ, উপজেলা বিএনপি নেতা মইনুল হক বকুল, সাবেক যুবদল ও ছাত্রদল নেতা বদরুল হোসেন খাঁন, বিএনপি নেতা দেলোয়ার হোসেন, অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম ও মোঃ আব্বাছ আলী। এদিকে শুক্রবার বিকেল ৪টায় কাউন্সিলে সভাপতি প্রার্থী কামাল উদ্দিন আহমদ জুনেদ ও সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী জয়নুল ইসলাম জুনেদ প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে কাউন্সিল থেকে সড়ে দাঁড়ান। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা বিএনপির আহবায়ক এডভোকেট এএনএম আবেদ রাজা।
নির্বাচনী তফশীল অনুসারে কাউন্সিলরের সংখ্যা হচ্ছে প্রতিটি ইউনিয়নে কমিটি ভুক্ত ৭১ জন করে মোট ১৩টি ইউনিয়নে ৯২৩ জন এবং আহবায়ক কমিটির ১৩ জন সর্বমোট ৯৩৬ জন।
কাউন্সিলে ভোটার হচ্ছেন উপজেলা আহবায়ক কমিটির ১৩ জন, সাথে ১৩ ইউনিয়নের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক মিলে ২৬ জন। মোট ৩৯ জন।
ছাপানো ব্যালেটের মাধ্যমে গোপন ভোটে এই ৩৯ জনের ভোটাধিকার প্রয়োগে উপজেলা সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক হওয়ার সাথে সাথে বর্তমান আহবায়ক কমিটি বিলুপ্ত হবে।
অত:পর নির্বাচিতরা সাবেক আহবায়কের সাথে পরামর্শ করে ১০১ সদস্য বিশিষ্ট কুলাউড়া উপজেলা কমিটি গঠন করে মৌলভীবাজার জেলার অনুমোদন নিয়ে কার্যক্রম পরিচালনা করবে।
সম্মেলন ও কাউন্সিল আজ ১৫ জুন শনিবার বিকাল তিনটায় কুলাউড়া স্কুল চৌমুহনীস্থ কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত হবে। প্রধান অতিথি থাকবেন জেলা বিএনপির সভাপতি এম নাসের রহমান, সাবেক এমপি। বিশেষ অতিথি থাকবেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজান। সভাপতিত্ব করবেন উপজেলা বিএনপির আহবায়ক অ্যাডভোকেট আবেদ রাজা।
উল্লেখ্য, গত ৩০ মার্চ জেলা বিএনপির সভাপতি কুলাউড়া উপজেলা ও পৌর কমিটি বিলুপ্ত করে দুটি পৃথক আহবায়ক কমিটি গঠন করে দেন। অত:পর উপজেলা আহবায়ক কমিটি ১৩টি ইউনিয়নে ওয়ার্ড কমিটি এবং পরবর্তীতে সকল ওয়ার্ডের সমন্বয়ে ইউনিয়ন কাউন্সিলের মাধ্যমে ইউনিয়ন কমিটি নির্বাচিত করা হয়।

পোস্ট শেয়ার করুন

আজ কুলাউড়া বিএনপির কাউন্সিলে কারা হচ্ছেন সভাপতি, সম্পাদক

আপডেটের সময় : ০৯:১৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০১৯

ছয়ফুল আলম সাইফুলঃ আজ কুলাউড়া বিএনপির কাউন্সিলে কারা হচ্ছেন সভাপতি, সম্পাদক ১৫ বছর পর অনুষ্ঠিত হচ্ছে কুলাউড়া উপজেলা বিএনপির সম্মেলন ও কাউন্সিল। আজ ১৫ জুন শনিবার অনুষ্ঠিত হবে বহুল প্রতীক্ষিত এ সম্মেলন ও কাউন্সিল। যাকে ঘিরে প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে নেতাকর্মীদের মাঝে। হামলা-মামলা, জেল-জুলুম ও নির্বাচন পরবর্তী এ কাউন্সিলই নতুন উদ্যোমে বিএনপিকে দাঁড় করাবে বলে অভিমত নেতাকর্মীদের। কাউন্সিলারদের ভোটে যোগ্য নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠিত হবে বলে দৃঢ় বিশ্বাস তৃণমূলের নেতাদের। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে ত্যাগী ও জেল জুলুমে নির্যাতিতদের প্রতি সফট্ কর্ণার রয়েছে ভোটারদের।
সূত্র জানায়, ১০ জুন সোমবার দুপুরে উপজেলা বিএনপির কার্যালয় থেকে মনোনয়ন ফরম বিতরণ করা হয়। ৩ পদে ১৩ জন প্রার্থী মনোনয়ন ক্রয় করেন। মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও কুলাউড়া উপজেলা বিএনপির আহবায়ক অ্যাডভোকেট আবেদ রাজা মনোনয়ন ফরম বিতরণ কার্যক্রমের উদ্ভোধন করেন। সভাপতি পদে ৩ জন মনোনয়ন সংগ্রহ করেন। তারা হলেন, উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি, সাবেক পৌর মেয়র ও জেলা বিএনপির সদস্য কামাল উদ্দিন আহমদ জুনেদ, উপজেলা বিএনপির সাবেক (ভারপ্রাপ্ত) সভাপতি ও পৌর প্যানেল মেয়র কারা নির্যাতিত নেতা জয়নাল আবেদীন বাচ্চু, সাবেক সাধারণ সম্পাদক, জেলা বিএনপির সদস্য ও কারা নির্যাতিত নেতা এমএ মজিদ।
সাধারণ সম্পাদক পদে মনোনয়ন সংগ্রহ করেন সাবেক ছাত্রনেতা ও উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক, জেলা বিএনপির সদস্য রেদওয়ান খান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক, জেলা বিএনপির সদস্য বদরুজ্জামান সজল, সাবেক সহ-সাধারণ সম্পাদক জয়নুল ইসলাম জুনেদ, সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক জয়নাল আবেদীন খাঁন।
সাংগঠনিক পদে মনোনয়নপত্র গ্রহন করেন কারা নির্যাতিত নেতা, উপজেলা ছাত্রদল ও যুবদলের সাবেক আহবায়ক সুফিয়ান আহমদ, উপজেলা বিএনপি নেতা মইনুল হক বকুল, সাবেক যুবদল ও ছাত্রদল নেতা বদরুল হোসেন খাঁন, বিএনপি নেতা দেলোয়ার হোসেন, অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম ও মোঃ আব্বাছ আলী। এদিকে শুক্রবার বিকেল ৪টায় কাউন্সিলে সভাপতি প্রার্থী কামাল উদ্দিন আহমদ জুনেদ ও সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী জয়নুল ইসলাম জুনেদ প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে কাউন্সিল থেকে সড়ে দাঁড়ান। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা বিএনপির আহবায়ক এডভোকেট এএনএম আবেদ রাজা।
নির্বাচনী তফশীল অনুসারে কাউন্সিলরের সংখ্যা হচ্ছে প্রতিটি ইউনিয়নে কমিটি ভুক্ত ৭১ জন করে মোট ১৩টি ইউনিয়নে ৯২৩ জন এবং আহবায়ক কমিটির ১৩ জন সর্বমোট ৯৩৬ জন।
কাউন্সিলে ভোটার হচ্ছেন উপজেলা আহবায়ক কমিটির ১৩ জন, সাথে ১৩ ইউনিয়নের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক মিলে ২৬ জন। মোট ৩৯ জন।
ছাপানো ব্যালেটের মাধ্যমে গোপন ভোটে এই ৩৯ জনের ভোটাধিকার প্রয়োগে উপজেলা সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক হওয়ার সাথে সাথে বর্তমান আহবায়ক কমিটি বিলুপ্ত হবে।
অত:পর নির্বাচিতরা সাবেক আহবায়কের সাথে পরামর্শ করে ১০১ সদস্য বিশিষ্ট কুলাউড়া উপজেলা কমিটি গঠন করে মৌলভীবাজার জেলার অনুমোদন নিয়ে কার্যক্রম পরিচালনা করবে।
সম্মেলন ও কাউন্সিল আজ ১৫ জুন শনিবার বিকাল তিনটায় কুলাউড়া স্কুল চৌমুহনীস্থ কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত হবে। প্রধান অতিথি থাকবেন জেলা বিএনপির সভাপতি এম নাসের রহমান, সাবেক এমপি। বিশেষ অতিথি থাকবেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজান। সভাপতিত্ব করবেন উপজেলা বিএনপির আহবায়ক অ্যাডভোকেট আবেদ রাজা।
উল্লেখ্য, গত ৩০ মার্চ জেলা বিএনপির সভাপতি কুলাউড়া উপজেলা ও পৌর কমিটি বিলুপ্ত করে দুটি পৃথক আহবায়ক কমিটি গঠন করে দেন। অত:পর উপজেলা আহবায়ক কমিটি ১৩টি ইউনিয়নে ওয়ার্ড কমিটি এবং পরবর্তীতে সকল ওয়ার্ডের সমন্বয়ে ইউনিয়ন কাউন্সিলের মাধ্যমে ইউনিয়ন কমিটি নির্বাচিত করা হয়।