আপডেট

x


অ্যাম্বুলেন্স নেই, অচেতন গর্ভবতীকে হাসপাতালে নেওয়া হলো বাইকে

শুক্রবার, ২৮ জুন ২০১৯ | ১১:৩৩ অপরাহ্ণ | 419 বার

অ্যাম্বুলেন্স নেই, অচেতন গর্ভবতীকে হাসপাতালে নেওয়া হলো বাইকে

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ আরকেবার সামনে এল ভারতের বেহাল স্বাস্থ্য পরিষেবা। অ্যাম্বুলেন্স না থাকায় অচেতন অবস্থায় গর্ভবতী নারীকে বাইকে বসিয়ে ১০ কিলোমিটার দূরের হাসপাতালে নিয়ে গেল পরিবারের লোকজন। ঘটনাটি ঘটেছে ঝাড়খণ্ডের লাতেহার জেলার ছান্দয়া ব্লকের ছাতুয়াগ গ্রামে।

গর্ভবতী ওই নারীর নাম শান্তি দেবী। ঘটনার দিন আচমকাই অসুস্থ হয়ে পড়েন ৩০ বছর বয়সী ওই নারী। নিকটবর্তী হেলথ সেন্টার ছান্দয়া কমিউনিটি হেলথ সেন্টার ১০ কিলোমিটার দূরে হওয়ায় বাড়ির লোকজন অ্যাম্বুলেন্স জোগাড়ের চেষ্টা করতে থাকে। এরই মধ্যে শরীর আরো খারাপ হয়ে পড়ে শান্তিদেবীর। শুরু হয় রক্তপাত।



কিছুক্ষণ পর অচেতন হয়ে পড়েন তিনি। এরপর অ্যাম্বুলেন্সের অপেক্ষা না করে বাড়ির লোকজন তাকে বাইকে করেই হাসপাতালের উদ্দেশে রওনা হয়। কিন্তু হেলথ সেন্টারে পৌঁছেও ভোগান্তির শেষ নেই।

সেখান থেকে তাকে ২৭ কিলোমিটার দূরে লাতেহার সদর হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। তবে এবার হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ শান্তিদেবীর ‌জন্য অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থা করে দেয়।

লাতেহার সদর হাসপাতালে পৌঁছানোর পর তাকে সেখানে ভর্তি করতে চাননি চিকিৎসকরা। ফলে আবার স্থানান্তরিত করা হয় শান্তিদেবীকে। এবার পাঠানো হয় রাজেন্দ্র ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল সায়েন্সেসে। শেষপর্যন্ত সেখানেই ভর্তি করা হয় শান্তিদেবীকে।

অসুস্থ ওই নারীর বাড়ির লোকদের অভিযোগ, কোনোভাবেই তারা অ্যাম্বুলেন্স পাননি। এমনকি ১০৮ নম্বরে ফোন করেও সাহায্য মেলেনি। সেজন্য শান্তিদেবীকে বাঁচাতে বাইকে করেই তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এদিকে, এই ছাতুয়াগ গ্রামকেই স্থানীয় সাংসদ ‘‌মডেল গ্রাম’‌ বানানোর জন্য নির্বাচন করেছিলেন। সেখানেই এই ঘটনা অবাক করেছে অনেককেই। এরই মধ্যে ঘটনাটির তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments


deshdiganto.com © 2019 কপিরাইট এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত

design and development by : http://webnewsdesign.com